ই-পেপার সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ ৬ কার্তিক ১৪২৬
ই-পেপার সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯

বনানীর বহুতল ভবনের নকশা অনুমোদনে রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যানসহ অর্ধশতাধিক চিহ্নিত
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ২২ মে, ২০১৯, ৫:১৬ পিএম আপডেট: ২২.০৫.২০১৯ ৬:২৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর বনানীতে অগ্নিকাণ্ডের শিকার বহুতল ভবনের নকশা অনুমোদনে বিধি লঙ্ঘন এবং নির্মাণের ক্ষেত্রে ত্রুটি-বিচ্যুতির জন্য রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যানসহ অর্ধশতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারীকে চিহ্নিত করে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সরকার।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই ভবনের আঠারোতলার নকশা অনুমোদন করা হয়েছিল বিধি লঙ্ঘন করে। তার ওপরে আরও পাঁচটি ফ্লোর নির্মাণের নকশাকে বৈধতা দিতে বিভিন্ন পর্যায়ে দুর্নীতি হয়। ত্রুটি ও নিয়মের ব্যত্যয় ছিল ভবনটি নির্মাণের ক্ষেত্রেও। বুধবার সচিবালয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম সংবাদ সম্মেলন করে তদন্ত প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেন। এ সময় তিনি বলেন, এই প্রতিবেদনে যাদের নাম এসেছে, তাদের বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ১৯৯০ সালে দেওয়া পনেরোতলা ভবনের নকশা অনুমোদন প্রক্রিয়া এবং অনুমোদন যথাযথ ছিল; কিন্তু ১৯৯৬ সালে ওই ভবনের আঠারোতলা আবাসিক কাম বাণিজ্যিক ভবনের নকশা অনুমোদনের ক্ষেত্রে ইমারত বিধিমালা মানা হয়নি। ১৯৯৬ সালের ইমারত বিধিমালা জারি হওয়ার পরও ভবনটির নকশা অনুমোদন করা হয় ১৯৮৪ সালের পুরনো বিধিমালার আলোকে। এক্ষেত্রে রাজউকের তৎকালীন চেয়ারম্যান হুমায়ুন খাদেম তার দায় এড়াতে পারেন না।

তদন্ত প্রতিবেদনে হুমায়ুন খাদেম ছাড়াও রাজউকের সাবেক সদস্য ডিএম ব্যাপারী, রাজউকের সাবেক নগর পরিকল্পনাবিদ জাকির হোসেন, সাবেক প্রধান প্রকৌশলী মো. সাইদুর রহমান, সাবেক অথরাইজড অফিসার-২ সৈয়দ মকবুল আহমেদ, সাবেক সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ উল্লাহ এবং জমির মূল মালিক এসএমএইচআই ফারুককে দায়ী করা হয়েছে বিধি লঙ্ঘনের জন্য।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]