ই-পেপার রোববার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৬ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কোনাবাড়ী ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার চালু হচ্ছে আজ
এইচ আর শাহীন গাজীপুর
প্রকাশ: শনিবার, ২৫ মে, ২০১৯, ১০:৪৭ পিএম আপডেট: ২৫.০৫.২০১৯ ১০:৩৪ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

কোনাবাড়ী ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার চালু হচ্ছে আজ

কোনাবাড়ী ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার চালু হচ্ছে আজ

ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে জয়দেবপুর-চন্দ্রা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা মহাসড়কের কোনাবাড়ী ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার দুটি উদ্বোধন করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ শনিবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই ফ্লাইওভার দুটির উদ্বোধন করবেন। এ সময় তিনি ওই মহাসড়কে ৩৩৭ দশমিক ৮০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত অপর ৪টি আন্ডারপাস ও দুইটি সেতুরও উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। এতে এবারের ঈদে ঘরমুখো মানুষ ভোগান্তি ছাড়াই নিরাপদে বাড়ি গিয়ে স্বজনদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে পারবে।

 সড়ক ও জনপথের ঢাকা সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খান জানান, সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্পের আওতায় মহাসড়কে ওই দুটি ফ্লাইওভারসহ ৪টি আন্ডারপাস ও দুইটি সেতু নির্মাণ করা হয়। শনিবার প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা মহাসড়কে নির্মিত ১৬৪৫ মিটার দীর্ঘ ৪-লেনের কোনাবাড়ী ফ্লাইওভার ও ২৮৮ মিটার দীর্ঘ ৪-লেনের চন্দ্রা ফ্লাইওভার, ৪-লেনের কালিয়াকৈর আন্ডারপাস, ২-লেনের দেওহাটা আন্ডারপাস, ২-লেনের মির্জাপুর আন্ডারপাস ও ৪-লেনের ঘারিন্দা আন্ডারপাস এবং ৭০ মিটার দীর্ঘ কড্ডা-১ সেতু ও ১২১ মিটার দৈর্ঘ্যরে বাইমাইল সেতুর উদ্বোধন ঘোষণা করবেন। এরপরই জনসাধারণের চলাচলের জন্য ওগুলো উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে সেগুলোর নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, ২৫৫ দশমিক ৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ফ্লাইওভার দুটি আসন্ন ঈদের আগেই খুলে দেওয়ায় এবারের ঈদে ঘরমুখো মানুষ ভোগান্তি ছাড়াই নিরাপদে বাড়ি গিয়ে স্বজনদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে পারবে। সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক-১ প্রকৌশলী মো. হাফিজুর রহমান জানান, দেশের উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে সরাসরি সড়ক যোগাযোগের একমাত্র করিডোর হচ্ছে জয়দেবপুর-চন্দ্রা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা মহাসড়ক। ৪টি প্যাকেজের মাধ্যমে এই মহাসড়কটি উন্নয়নের জন্য ২০১৬ সালের জানুয়ারি থেকে নির্মাণ কাজ শুরু হয়। শনিবারের উদ্বোধনের পর এই মহাসড়কে আরো ৫টি ফ্লাইওভার, ৯টি আন্ডারপাস এবং ধীর গতির যানবাহনের জন্য আলাদা ২টি লেনসহ সড়কের ৪-লেনে উন্নীতকরণের কাজ ২০২০ সালের জুন মাসের মধ্যে সমাপ্ত হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

তিনি জানান, প্রায় ২১০.৫৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪-লেন বিশিষ্ট কোনাবাড়ী ফ্লাইওভার নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। কোনাবাড়ী মূল ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য ১৬৪৫ মিটার, তবে র‌্যাম্পসহ এ ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য ২০১০ মিটার ও প্রস্থ ১৮.২০ মিটার। এটির স্প্যান সংখ্যা ৪০টি, পাইল সংখ্যা ৬৫২টি এবং পিয়ার সংখ্যা ৩৯টি।  অপরদিকে চন্দ্রা ফ্লাইওভার নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৪৫.২১ কোটি টাকা। ৪-লেন বিশিষ্ট চন্দ্রা মূল ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য ২৮৮ মিটার, তবে র‌্যাম্পসহ এ ফ্লাইওভারের দৈর্ঘ্য ৬৬০ মিটার ও প্রস্থ ১৮.২০ মিটার। এটির স্প্যান সংখ্যা ৭টি, পাইল সংখ্যা ১২৪টি এবং পিয়ার সংখ্যা ৬টি।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বলেন, প্রকল্পগুলো ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনের জন্য প্রধানমন্ত্রী সদয় সম্মতি প্রদান করেছেন। তিনি শনিবার সকালে গণভবন থেকে গাজীপুরের সঙ্গে সংযুক্ত হবেন। এজন্য গাজীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নাট মন্দিরে সকল প্রস্তুতিসম্পন্ন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে জেলার সকল সংসদ সদস্যগণসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তিরা, উপকারভোগীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করবেন।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]