ই-পেপার  বুধবার ২৬ জুন ২০১৯ ১২ আষাঢ় ১৪২৬
ই-পেপার  বুধবার ২৬ জুন ২০১৯

ঝালকাঠি জেলায় শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৩ হাজার
ঈদের আগে বেতন পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীরা
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
প্রকাশ: শনিবার, ১ জুন, ২০১৯, ৩:৫০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ঈদের আগে বেতন পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীরা

ঈদের আগে বেতন পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় মাদরাসার শিক্ষক-কর্মচারীরা

স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন ও ঈদ-উল-ফিতরের বোনাসের চেক ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে গত ২৩ মে। ইতোমধ্যে তাদের অনেকে বেতন-বোনাস তুলেছেন। যারা তুলেননি নিশ্চিন্তে আছেন ঈদের আগে যে কোন সময় তুলতে পারবেন এবং তুলে নিবেন। কিন্তু একই মান ও মর্যাদার অধিকারী ঝালকাঠি জেলার বিভিন্ন মাদরাসার প্রায় সাড়ে ৩ হাজার শিক্ষক-কর্মচারীরা আছেন অনিশ্চয়তায়। ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কা করছেন বেশিরভাগ শিক্ষক-কর্মচারী।

তারা জানান, তাদের বেতন-বোনাসের চেক বৃহস্পতিবার সকালে ঝালকাঠি রূপালী ব্যাংকে পৌছলেও ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বেতন না ছাড়ায়  ঈদ-উল-ফিতরের আগে টাকা হাতে না পাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। অথচ ঈদের আগে সোমবারে মাত্র ১টি কর্মদিবস রয়েছে। এখনও মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের মে মাসের বেতন ও পবিত্র ঈদুল ফিতরের বোনাস প্রদান না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারী ও তাদের বিভিন্ন সংগঠন। মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদাসীনতার কারণে একে অপরের উপর দায় চাপানোর ফলে ভোগান্তির স্বীকার হয়ে ঈদ আনন্দ ¤øান হতে চলছে মাদ্রাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের।   

মাদরাসা শিক্ষকদের অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, ঝালকাঠি রূপালী ব্যাংকে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বেতন বা ঈদ বোনাসের অর্ডার আসে বৃহস্পতিবার সকালেই। কিন্তু ওই দিন তিনি বেতন ছাড়তে শুরু না করে গড়িমসি করেন। সামনে আছে সোমবার আর মাত্র ১টি কর্মদিবস। ঈদের আগে ১দিনে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার মাদ্রাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন ও বোনাস প্রদান করা অসম্ভব হয়ে যাবে।

মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীরা বলেন, একই দেশের বসবাস করে, একই সরকারের অধিনে থেকে কেউ উল্লাসের মধ্যে ঈদ উপভোগ করবে, আবার কেউ অশ্রুসিক্ত থাকবে তা হতে পারে না। মাদ্রাসা শিক্ষাবান্ধব সরকারের ভাবমূর্তি নষ্টকরার জন্য যাদের চক্রান্তে কিংবা অলসতায় কাঙ্খিত সময়ে মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীরা মে মাসের বেতন ও ঈদুল ফিতরের বোনাস থেকে বঞ্চিত / হয়রানি হল তা ক্ষতিয়ে দেখে অবিলম্বে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা। এদিকে মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের বিভিন্ন সংগঠন অভিযোগ করে বলেন, মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠার পর থেকেই শিক্ষকদের বেতন ভাতাদী প্রদানে প্রায়ই এমন বিলম্ব হয়ে থাকে। ভবিষ্যতে যাতে মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের এমন দুর্ভোগ পোহাতে না হয় সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা। মাদরাসা শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বিলম্বের কারণ সম্পর্কে জানতে রূপালী ব্যাংকের ম্যানেজারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। ব্যাংক অফিসার চান মিয়া জানান, অধিদপ্তর থেকে মে মাসের বেতন ও ঈদ বোনাসের চেক আসছে। সোমবার সকল শিক্ষকদের বেতন-বোনাস প্রদান করা হবে। সকাল থেকে দেয়া শুরু করে যতক্ষণে শেষ না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত মাদরাসা শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-বোনাস দেয়া হবে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]