ই-পেপার  বুধবার ২৬ জুন ২০১৯ ১১ আষাঢ় ১৪২৬
ই-পেপার  বুধবার ২৬ জুন ২০১৯

মসজিদের মাইকে ডাকাত বলে ঘোষণা
সিলেটে ধর্ষণ মামলার আসামি ‘গণপিটুনিতে’ নিহত
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০১৯, ২:৩৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সিলেটে ধর্ষণ মামলার আসামি ‘গণপিটুনিতে’ নিহত

সিলেটে ধর্ষণ মামলার আসামি ‘গণপিটুনিতে’ নিহত

সিলেটে ধর্ষণ মামলায় জেল খেটে বের হওয়ার দুই সপ্তাহের মাথায় গণপিটুনিতে নিহত হয়েছেন দুদু মিয়া (৩৭) নামে এক ব্যক্তি। দুদু নগরীর বনকলাপাড়া ১১২ নম্বর বাসার কামাল খানের ছেলে। তিনি স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী ছিলেন বলে জানা গেছে। নগরীর বনকলাপাড়া এলাকায় বুধবার রাত ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত দুদুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ-ডাকাতিসহ ৪-৫টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাত ১১টার দিকে এলাকায় ডাকাত পড়েছে বলে বনকলাপাড়া এলাকার মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয়া হয়। এ ঘোষণা শুনে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে বনকলাপাগড়ার গোলাপ পয়েন্টে দুদুকে পিটিয়ে হত্যা করেন। দুদু এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

এলাকাবাসী জানান, নিহত দুদুর বিরুদ্ধে ধর্ষণসহ একাধিক মামলা রয়েছে। গত পহেলা বৈশাখের পর দিন বনকলাপাড়ায় সংঘটিত একটি ধর্ষণ মামলার আসামি দুদু। ওই মামলায় জেল খেটে মাত্র দুই সপ্তাহ আগে সে বেরিয়ে আসে। দুদু নিজেকে স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী ও কাউন্সিলরের লোক হিসেবে এলাকায় পরিচয় দিতেন বলে এলাকাবাসী জানান। যদিও দুদুর কোনো রাজনৈতিক পরিচয়  নেই বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবকল লীগের সভাপতি ও স্থানীয় কাউন্সিলর আফতাব আহমদ খান। তিনি জানান, মসজিদে মাইকিং করে গণপিটুনিতে একজনকে মারা হয়েছে। কি কারণে মারা হয়েছে তা খোঁজ নিয়ে দেখছি।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) মো. জেদান আল মুসা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সময়ের আলো’কে বলেন, নগরীর বনকলাপাড়া থেকে দুদু নামে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এলাকাবাসী জানিয়েছে, ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গণপিটুনিতে সে মারা যায়। দুদুর বিরুদ্ধে ধর্ষণ-ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ৪-৫টি মামলা রয়েছে। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ১৪ এপ্রিল সিলেট নগরীর কলাপাড়া আবাসিক এলাকায় স্বামীকে বেধে  রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর মধ্যে একজন ছিল দুদু। গত প্রায় দুই সপ্তাহ আগে সে জামিনে বেরিয়ে আসে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]