ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ ৮ শ্রাবণ ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯

পানিবন্দি দুই শতাধিক পরিবার
লালমনিরহাট প্রতিনিধি
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতের উজান থেকে নেমে আসা ঢলে লালমনিরহাটে তিস্তা নদীতে হঠাৎ করেই পানি বেড়েছে। এতে বুধবার রাতেই জেলার বিভিন্ন এলাকায় পুকুরের পাড় ভেঙে পানিতে ভেসে গেছে কয়েক লাখ টাকার মাছ। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় হাতীবান্ধায় তিস্তা ব্যারেজ এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ড পরিমাপ করে দেখেছে বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এ পানি ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।
জানা গেছে, তিস্তা ব্যারেজের উজানে পানির বিপদসীমা নির্ধারণ করা আছে ৫২ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার। মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় ব্যারেজ এলাকায় পানি ৫২ দশমিক ৪০ সেন্টিমিটার উচ্চতায় প্রবাহিত হলেও বুধবার ১৯ জুন পানি বেড়ে ৬০ সেন্টিমিটার উচ্চতায় প্রবাহিত হচ্ছে। তিস্তা পাড়ের লোকজন জানান, হঠাৎ ঢলে তিস্তার দুই ধারে বসবাসরত মানুষের কিছু ঘরবাড়ি পানিতে ডুবে গেছে।
তারা আরও জানান, সকালে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় অবস্থিত তিস্তা ব্যারাজের উজানে ভারতের গজলডোবা ব্যারাজের সব গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। এতে ভাটিতে লালমনিরহাট অংশে তিস্তা নদীতে পানির প্রবাহ বেড়ে গেছে।
দহগ্রাম ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান বলেন, প্রায় পানিশূন্য তিস্তায় হঠাৎ পানি বেড়ে যাওয়ায় দহগ্রাম ইউনিয়নের বেশকিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে দেড় থেকে দুইশ পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।
এদিকে হাতীবান্ধা ও কালীগঞ্জ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন এবং লালমনিরহাট সদর উপজেলার কালমাটি আদর্শপাড়া এলাকায় মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে হঠাৎ করে পানি ঢুকে পড়ায় পাড় ভেঙে কয়েকটি পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। এতে কয়েক লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে মৎস্য চাষি সিরাজুল হক, সেকেন্দার আলী ও রফিকুল মাস্টার সাংবাদিকদের জানান।
বুধবার পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী বজলে করিম জানান, বর্তমানে তিস্তার পানি ৬০ সেন্টিমিটার উচ্চতায় পানি প্রবাহিত হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, পানি প্রবাহ আরও বাড়তে পারে। এ জন্য তিস্তা ব্যারাজের সবগুলো গেট খুলে পানিপ্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]