ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ ৮ শ্রাবণ ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯

নাসায় যাচ্ছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দল
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: শুক্রবার, ২১ জুন, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ২১.০৬.২০১৯ ১২:৪৫ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

নাসায় যাচ্ছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দল

নাসায় যাচ্ছে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দল

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮ প্রতিযোগিতার ৬টি ক্যাটাগরির বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ৬টি দল মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টার ভ্রমণ এবং ফ্যালকন-নাইন স্পেস শাটলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮-এর আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ দল ‘টিম অলিক’ এবং বাংলাদেশে এ প্রতিযোগিতার প্রতিনিধিদের কেনেডি স্পেস সেন্টার ভ্রমণের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।
জুলাইয়ের ১৯ তারিখ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের অরল্যান্ডো বিমানবন্দরের উদ্দেশে রওনা হয়ে ২০ জুলাই পৌঁছার পর ২১-২৩ জুলাই আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের নেতৃত্বে নাসার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের।
২১ জুলাই ফ্যালকন-নাইন স্পেস শাটলের উড্ডয়ন অনুষ্ঠানে অংশ নেবে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮-এ বিজয়ী দল এবং প্রতিনিধিরা। পরবর্তী দুই দিন (২২-২৩ জুলাই) যুক্তরাষ্ট্রের অরল্যান্ডোর কেনেডি স্পেস সেন্টারে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ৬টি দল সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নেবে এবং কেনেডি স্পেস সেন্টার ঘুরে দেখবে।
উল্লেখ্য, নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮-তে বাংলাদেশ দল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার খেতাব অর্জন করে চলতি বছরের ১৬ ফেব্রæয়ারি। প্রথমবারের মতো ১৩৯৫টি দলকে হারিয়ে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮-এর বিশ্বচ্যাম্পিয়নের খেতাব অর্জন করে নেয় বাংলাদেশ। বেস্ট ইউজ অব ডেটা ক্যাটাগরিতে শীর্ষ চারে স্থান করে নেওয়া ক্যালিফোর্নিয়া, কুয়ালালামপুর আর জাপানের দলকে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে সিলেট থেকে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে মনোনয়ন পাওয়া শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘টিম অলিক’।
এর আগে গত বছরের ৮ ডিসেম্বর ঘোষিত প্রাথমিক ফলাফলে বিশে^র ৭৯টি দেশের প্রায় ২৭২৯টি দলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের দুটি ক্যাটাগরির শীর্ষ চারে উঠে আসে বাংলাদেশ। টিম অলিকের ‘লুনার ভিআর প্রজেক্ট’টি মূলত একটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপ, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারী চাঁদে ভ্রমণের একটি অভিজ্ঞতা পাবেন। টিম অলিক নাসা প্রদত্ত বিভিন্ন রিসোর্স থেকে থ্রিডি মডেল ও তথ্য সংগ্রহ করে, নাসা অ্যাপোলো ১১ মিশন-এর ল্যান্ডিং এরিয়া ভ্রমণ, চাঁদ থেকে সূর্যগ্রহণ দেখা এবং চাঁদকে একটি স্যাটেলাইট-এর মাধ্যমে আবর্তন করা এই তিনটি ভিন্ন পরিবেশকে ভার্চুয়ালভাবে তৈরি করেছে।
নাসায় বাংলাদেশ দলের অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এবং বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ অর্জন ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার আরেকটি অনন্য দৃষ্টান্ত। বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, আমরা বেসিস থেকে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে যাত্রা অব্যাহত রেখেছি, এ অর্জন আমাদের প্রচেষ্টার পথে আরেকটি বড় মাইলফলক। নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮-এর আহŸায়ক দিদারুল আলম বলেন, আমরা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছি। এবার নাসা ভ্রমণের পালা। টিম অলিকের দলনেতা আবু সাবিক মাহদি বলেন, আমরা বাংলাদেশকে আরও উঁচুতে আসীন করতে চাই।
প্রসঙ্গত, বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সহায়তায় আয়োজিত নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় ২০১৮ সালে ২০০০ প্রকল্প থেকে বাছাই করে সেরা ৪০টি প্রকল্প নাসার জন্য মনোনীত করা হয়।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]