ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ ৮ শ্রাবণ ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯

বিশ্বকাপে নিউ জিল্যান্ডকে প্রথম হারের স্বাদ দিল পাকিস্তান
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন, ২০১৯, ১২:৩৯ এএম | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বকাপে  নিউ জিল্যান্ডকে প্রথম হারের স্বাদ দিল পাকিস্তান

বিশ্বকাপে নিউ জিল্যান্ডকে প্রথম হারের স্বাদ দিল পাকিস্তান

বুধবার বার্মিংহামের এজবাস্টনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিলো পাকিস্তানের জন্য অনেকটা বাঁচা-মরার লড়াই। কারণ হারলেই শঙ্কায় পড়ে যাবে তাদের সেমিফাইনালের টিকিট। অন্যদিকে এ ম্যাচে জিতলেই অস্ট্রেলিয়ার পর দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ চারে পৌঁছে যেত কিউইরা।

কিন্তু বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে ৬ উইকেটে জিতেছে সরফরাজ আহমেদের দল। ২৩৮ রানের লক্ষ্য ৫ বল বাকি থাকতে ছাড়িয়ে যায় পাকিস্তান। ২৩৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা খুব একটা ভালো হয়নি পাকিস্তানের। দুই ওপেনার ইমাম উল হক (১৯) ও ফাখর জামান (৯) সাজঘরে ফিরে যান দলীয় ৪৪ রানের মাথায়ই। তবে তৃতীয় উইকেটে প্রাথমিক প্রতিরোধ গড়েন বাবর আজম ও মোহাম্মদ হাফিজ।

দুজন মিলে যোগ করেন ৬৬ রান। কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ভাঙেন এ জুটি। দলীয় ১১০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৩২ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন হাফিজ। তবু স্বস্তি ফেরেনি কিউই শিবিরে। কারণ চতুর্থ উইকেটে ম্যাচ জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন হারিস সোহেল ও বাবর আজম।

এ ম্যাচ খেলতে নামার আগে বাবরের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের রান ছিল ২৯৭১। তিনি আজ শুধু ক্যারিয়ারের ৩০০০ রানই পূরণ করেননি, খেলেছেন দশম সেঞ্চুরির ইনিংসও। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন আগের ম্যাচের জয়ের নায়ক হারিস সোহেল।

বাঁহাতি এ অলরাউন্ডার সেঞ্চুরি না পেলেও, তুলে নিয়েছেন ব্যাক টু ব্যাক ফিফটি। আর তাদের দুজনের ১২৬ রানের চতুর্থ উইকেট জুটিতেই মূলত সহজ জয় পেয়েছে পাকিস্তান। জয়ের জন্য মাত্র ২ রান বাকি থাকতে রানআউটে কাঁটা পড়েন ৭৬ বলে ৬৮ রান করা হারিস।

তবে শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন সেঞ্চুরিয়ার বাবর। তিনি অপরাজিত ছিলেন ১০১ রান করে।

এর আগে  বুধবার বৃষ্টির জন্য এক ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয় ম্যাচ ৷ মেঘাচ্ছন্ন আবহাওয়ায় স্যাঁতসেতে পিচে তবু টস জিতে ব্যাটিংয়ের চ্যালেঞ্জ নেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন৷ পেসারদের অনুকূল পরিবেশে এজবাস্টনের পিচে শুরুতেই আগুন ঝরান মুহাম্মদ আমির, শাহীন শাহ আফ্রিদিরা৷ বিশেষ করে শাহীনের আগুনে বোলিংয়ে ঝলসে যায় কিউয়িদের টপ অর্ডার৷ তা সত্ত্বেও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নিউজিল্যান্ড লড়াইয়ের রসদ জোগাড় করে নেয় জিমি নিশাম ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের দায়িত্বশীল পার্টনারশিপের সৌজন্যে৷

এক প্রান্ত আঁকড়ে নিশামের লড়াকু ইনিংসই নিউজিল্যান্ডকে দু’শোর গণ্ডি পার করায় ৷ না হলে এক সময় ৮৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল ব্ল্যাক ক্যাপরা ৷ সেখান থেকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে নিউজিল্যান্ড ৬ উইকেটে ২৩৭ রান তোলে৷ নিশ্চিত শতরানের দোরগোড়ায় থেমে যেতে হয় নিশামকে৷ অনবদ্য হাফসেঞ্চুরি করেন গ্র্যান্ডহোমও৷ হাফসেঞ্চুরি হাতছাড়া করলেও কেন উইলিয়ামসনের কার্য়করী ইনিংস নিউজিল্যান্ডকে প্রাথমিক বিপর্যয় থেকে উদ্ধার করতে কিছুটা হলেও সক্ষম হয়৷

পাকিস্তান একাদশ : ফাখর জামান, ইমাম-উল-হোক, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ, হারিস সোহেল, সরফরাজ আহমেদ (উইকেটরক্ষক ও অধিনায়ক), ইমাদ ওয়াসিম, ওয়াহাব রিয়াজ, শাদাব খান, মোহাম্মদ আমির, শাহীন শাহ আফ্রিদি।

নিউজিল্যান্ড একাদশ : মার্টিন গাপটিল, কলিন মুনরো, কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), রস টেলর, টম লাথাম (উইকেটরক্ষক), জেমস নিশাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, ট্রেন্ট বোল্ট, ম্যাট হেনরি, লুকি ফার্গুসন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]