ই-পেপার শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৬ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

হলি আর্টিজান হামলার তিন বছর আজ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: সোমবার, ১ জুলাই, ২০১৯, ১০:১১ এএম আপডেট: ০১.০৭.২০১৯ ১১:৫৫ এএম | অনলাইন সংস্করণ

হলি আর্টিজান হামলার তিন বছর আজ

হলি আর্টিজান হামলার তিন বছর আজ

হলি আর্টিজানে ভয়ঙ্কর হামলার তিন বছর পূর্ণ হচ্ছে আজ। ২০১৬ সালের এই দিনে গুলশানের ৭৯ নম্বর সড়কের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলা চালানো হয়। এ ঘটনা বাংলাদেশসহ পুরো বিশ্বকে নাড়িয়ে দেয়। ক্ষতবিক্ষত করে কোটি মানুষের হৃদয়। অনেকে স্বজনহারা হয়, অনেকে সেই ক্ষত এখনও বহন করছে। জঙ্গিদের ভয়াবহ এই হামলায় দেশি-বিদেশি নাগরিক মিলে ২৩ জন নিহত হয়। নিহতের তালিকায় ঢাকার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর দুই সদস্যও ছিলেন। হামলার পর হলি আর্টিজানে সেনাবাহিনী অপারেশন চালায়। যার নাম দেওয়া হয়েছিল থান্ডার বোল্ড। আর তাতে নিহত হন পাঁচ জঙ্গি।

আলোচিত এ হামলার পর অনেক জঙ্গি গ্রেফতার হয়েছে। তারা আবার জামিন নিয়ে পলাতকও। সেসব জঙ্গি এখনও বিভিন্ন জায়গায় হামলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এই আশঙ্কাকে নাকচ করে দিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। 

রোববার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, হলি আর্টিজান হামলার পরবর্তী সময়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় জঙ্গি সংগঠনগুলোর সাংগঠনিক কাঠামো ভেঙে গেছে। তাদের নেতৃত্ব পর্যায়ে ধারাবাহিক সব নেতাই হয়তো কোনো না কোনো অভিযানে নিহত হয়েছে, নয়তো গ্রেফতার হয়ে জেলে রয়েছে। ছোট ছোট গ্রুপে বিভক্ত হয়ে তাদের কর্মকান্ড চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। তবে তাদের প্রচেষ্টা থাকলেও বড় ধরনের হামলা চালানোর সক্ষমতা নেই।
 
সিটিটিসি ইউনিটের প্রধান মনিরুল জানান, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত ২২ জঙ্গির মধ্যে ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি ১৩ জঙ্গি বিভিন্ন সময়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে নিহত হয়েছে। সর্বশেষ গ্রেফতারকৃত দুজনের কাছ থেকে চার্জশিটে সংযুক্ত করার মতো কারও নাম আসেনি। 

মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা জানান, এ ঘটনায় চার্জশিট প্রদান করা থেকে অব্যাহতি পেয়েছে সন্দেহভাজন নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির সাবেক শিক্ষক আবুল হাসনাত রেজাউল করিম ও কানাডা প্রবাসী তাহমিদ হাসিব খান। এ ঘটনার পর তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। মামলার তদন্তে ঘটনার সঙ্গে মোট ২১ জন জড়িত ছিল বলে তথ্য পায় পুলিশ এবং এর মধ্যে ঘটনার দিন ও পরে ১৩ জনই বিভিন্ন অভিযানে নিহত হয়েছে বলে জানান পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]