ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯ ৪ কার্তিক ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯

জাবিতে ছাত্রলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষ ও গোলা-গুলিতে প্রক্টর সহ আহত ২০
জাবি প্রতিনিধি
প্রকাশ: বুধবার, ৩ জুলাই, ২০১৯, ৪:০৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

জাবিতে ছাত্রলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষ ও গোলা-গুলিতে প্রক্টর সহ আহত ২০

জাবিতে ছাত্রলীগের ২ গ্রুপের সংঘর্ষ ও গোলা-গুলিতে প্রক্টর সহ আহত ২০


গতকাল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মওলানা ভাসানী হল ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ছাত্রলীগ কর্মীদের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা কে কেন্দ্র করে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মহিবুর রৌফ শৈবাল ও বঙ্গবন্ধু হলের ওয়ার্ডেন মেহেদী ইকবাল সহ দুই হলের অন্তত ১৮ শিক্ষার্থী আহত হন। এদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা আশঙকাজনক।
ক্যাম্পাসে বটতলার খাবারের দোকানে  তুচ্ছ ঘটনা কে কেন্দ্র করে দুই হলের ছাত্রলীগ কর্মীদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

মওলানা ভাসানী হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী সৌরভ কাপালী (মার্কেটিং ৪৫ ব্যাচ) কে ধাক্কা মারার অভিযোগে বঙ্গবন্ধু হলের ছাত্রলীগ কর্মী দ্বীপ মঙ্গল (বাংলা ৪৬) কে  চর মারার কারনে বঙ্গবন্ধু হলের ছাত্রলীগ কর্মীরা সৌরভ কাপালি কে মারধর করে। মওলানা ভাসানী হলের ছাত্রলীগ কর্মীরা কাপালি কে উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে দুই হলের ছাত্রলীগ কর্মী  সহ  সাধারণ শিক্ষার্থীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে।

এতে উভয় পক্ষই ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু করে। এক পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু হলের ছাত্রলীগ কর্মী  আফফান হোসেন আফিন (অর্থনীতি ৪১ ব্যাচ) ৩ রাউন্ড ও হাবিবুর রহমান লিটন ( দর্শন ৪৩) কে ভাসানী হলের ছাত্রলীগ কর্মীদের উদ্দেশ্যে ২ রাউন্ড গুলি ছুড়তে দেখা যায়।

সংঘর্ষ শুরুর কিছুক্ষণ পর প্রক্টর ফিরোজ উল হাসান ঘটনাস্থলে পৌছান। তিনি সহ প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা দাড়িয়ে থেকে উভয় পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করে। প্রক্টরিয়াল বডি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হলে প্রসাশনের পক্ষ থেকে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে পুুলিশ পৌছালে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষপ করে দুই পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। আহতদের তাৎক্ষনিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাকেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে গুরুতরদের সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনা সম্পর্কে প্রক্টর ফিরোজ উল হাসান জানান, ঘটনা শোনার পরপরই আমি সহ প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দুই পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হলে পুলিশ প্রশাসন কে খবর দেওয়া হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]