ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ ৭ শ্রাবণ ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯

শেরপুরে স্কুলছাত্রীর হত্যা মামলা পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩
শেরপুর প্রতিনিধি
প্রকাশ: রোববার, ৭ জুলাই, ২০১৯, ৯:০৬ এএম আপডেট: ০৭.০৭.২০১৯ ৯:১০ এএম | অনলাইন সংস্করণ

শেরপুরে স্কুলছাত্রীর হত্যা মামলা পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩

শেরপুরে স্কুলছাত্রীর হত্যা মামলা পরিচালকসহ গ্রেফতার ৩


শেরপুর শহরের সজবরখিলা এলাকার ফৌজিয়া মতিন পাবলিক স্কুলের ছাত্রীনিবাস থেকে আনুশকা আয়াত বন্ধন (১৪) নামে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। শনিবার রাতে শিক্ষার্থী বন্ধনের বাবা আনোয়ার জাহিদ বাবু মৃধা বাদী হয়ে সদর থানায় ওই মামলা দায়ের করেন। এদিকে মামলা গ্রহণের পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি ফৌজিয়া মতিন পাবলিক স্কুলের পরিচালক আবু ত্বাহা সাদী (৫২) সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অন্য দুজন হচ্ছে সাদীর স্ত্রী নাজনীন মোস্তারি নূপুর (৪৫) ও তার বড়ভাই শিবলী (৬০)। ওই স্কুলের সাথেই থাকা বাসায় বসবাস করতেন সাদী ও তার পরিবারের লোকজন।

শিক্ষার্থী বন্ধনের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা গ্রহণ ও প্রধান আসামি সাদীসহ ৩ জনকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে শনিবার রাত ১১টায় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বন্ধনের বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই হত্যা মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। সেইসাথে প্রতিষ্ঠানের পরিচালক, তার স্ত্রী ও এক বড়ভাইকে ওই মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। তিনি আরও জানান, ময়নাতদন্তের বিষয়ে এখনও চিকিৎসকের মতামত জানা যায়নি।

এদিকে স্থানীয় সূত্রসহ একাধিক সূত্রের ধারণা, বন্ধন ধর্ষণের শিকার হয়ে থাকতে পারে এবং এরপর তার লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়ে থাকতে পারে। কিংবা ধর্ষণের শিকার হয়ে সে নিজেও আত্মহত্যা করে থাকতে পারে। স্থানীয় সূত্রের তথ্যমতে, আবু ত্বাহা সাদী জামায়াত সমর্থক। ছাত্রজীবনে তিনি শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ও নাশকতার একাধিক মামলা এখনও বিচারাধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য, ৬ জুলাই শনিবার দুপুরে শহরের সজবরখিলা এলাকার ফৌজিয়া মতিন পাবলিক স্কুলের ছাত্রীনিবাস থেকে আনুশকা আয়াত বন্ধনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওইসময় বন্ধনের পরিবারের লোকজন দাবি করে, তাকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিতে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এরপর পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তকালে উপস্থিত থাকেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]