ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯ ৪ কার্তিক ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯

ঢাবি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের আগুন নিয়ন্ত্রনে
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশ: রোববার, ৭ জুলাই, ২০১৯, ১:০৮ পিএম আপডেট: ০৭.০৭.২০১৯ ১:১১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ঢাবি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের আগুন নিয়ন্ত্রনে

ঢাবি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের আগুন নিয়ন্ত্রনে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে  রোববার বেলা ১০.৩০ টার সময়  আগুন লেগেছে। তবে আগুন লাগার ১৫ মিনিটের মধ্যে  আগুন নেভাতে সক্ষম হয় কর্মকর্তা-শিক্ষার্থীরা। তবে এতে আতংক ছড়িয়ে পড়ে ভেতরে পড়ুয়া শিক্ষার্থেীদের মধ্যে। যদিও কোন হতহতের ঘটনা ঘটেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সুত্রে জানা যায়, সকাল ১০.৩০ টার সময় নিচতলার সার্কিট বোর্ডে আগুন লাগে। সেখানে এসি তারে ও আগুন লাগে। একিভাবে লাইব্রেরীর ৩ তলায় আগুন লাগে। আগুন লাগার ২৫ মিনিট পর ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি আসে। ততক্ষনে আগুন ফায়া এক্নটিংগুইসারের মাধ্যমে গ্যাসের মাধ্যমে আগুন নেভানো হয়।

এদিকে বের হওয়ার জন্য ইমার্জেন্সি এক্সিট ওয়ে না থাকায় আগুন লাগার পর ভেতেরে অিবস্থিত প্রায় ২ হাজার শিক্ষার্থী-কর্মকর্তার মধ্যে  আতঙ্ক তৈরী হয়। একটা সিড়ে দিয়ে নামতে গিয়ে জটলা তৈরী হয়।

জানতে চাইলে ভেতরে অবস্থানকারী ঢাবি শিক্ষার্থী সাইফুল আলম বলেন, আমরা হাজারের উপর  শিক্ষার্থী  ভেতরে আছি। কিন্তু আগুন লাগার পর একই সিড়ি দিয়ে নামতে গিয়ে জটলা তৈরী হয়। বড় ঘটনা ঘটলে আমরা হয়তো জটলার মধ্যে বের হতে পারতামনা। এওতগুলো এসি আছে অগ্নি ঝুকি ওেমাকাবেলায় পর্যাপ্ত নিতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপবক ড. সামাদ বলেন, শর্ট সার্কিট হওয়ার সাথে সাথে লাইব্রেরীর কর্মকর্তা কর্মচারীরা অগ্নীনির্বাক যন্ত্রের  সাহায্যে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এতে কোন হতাহতর ঘটনা ঘটেনি।

লাইব্রেরীতে এমার্জেন্সি এক্সিট ওয়ে না থাকার বিষয়ে তিনি বলেন, এটি অনেক পুরানো লাইব্রেরী তবে এখন আমরা এসেসমেন্ট  ইমার্জেন্সি এক্সিট ওয়ে  নির্মানের বিষয়ে সিদ্ধন্ত নিবো।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]