ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯ ৪ কার্তিক ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯

ইহরামে সতর্কতা
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

ইহরাম মানে হারাম করে নেওয়া। অন্য সময়ে অনেক কিছু জায়েজ হলেও হজ কিংবা ওমরাহর ইহরাম শুরু হওয়ার পর থেকে কিছু কাজ করা নাজায়েজ হয়ে যায়। এ সম্পর্কে কিছু আলোচনা নিচে দেওয়া হলো।ষ পুরুষদের জন্য শরীরের মাপে সেলাই করা বা বুনন করা কাপড় যেমন শার্ট, পাঞ্জাবি, প্যান্ট, পায়জামা, শেরওয়ানি, কোট, সোয়েটার, মোজা, জাঙ্গিয়া ইত্যাদি পরিধান করা নিষেধ।
ষ টাকা-পয়সার থলে বা বেল্ট পরিধান করা যাবে।
ষ কাপড়ে বা শরীরে কোনো প্রকার সুগন্ধি মাখতে পারবে না। সুগন্ধিযুক্ত সাবানও ব্যবহার করা যাবে না। ফল-ফুলের সুঘ্রাণ ইচ্ছা করে গ্রহণ করা মাকরূহ। তবে যেকোনো সুগন্ধি যদি অনিচ্ছা সত্তে¡ও নাকে ঢুকে পড়ে তাতে সমস্যা নেই।
ষ শরীর থেকে কোনো লোম বা চুল ওঠানো বা কাটা নিষেধ।
ষ নখ কাটা নিষেধ।
ষ পুরুষদের মাথা বা মুখ ঢাকা নিষেধ। মহিলাদের মুখের ওপর কাপড় রাখা নিষেধ।
ষ ইহরাম অবস্থায় স্ত্রী মিলন বা আনুষঙ্গিক কাজ করা সম্পূর্ণরূপে নাজায়েজ। এমনকি মহিলাদের সামনে এ সংক্রান্ত কথা বলাও নাজায়েজ।
ষ স্থলভাগের কোনো প্রাণী হত্যা বা শিকার করা নিষেধ। এমনকি নিজে শিকার না করে অন্য কাউকে শিকার করতে ইশারা করাও নিষেধ।
ষ ঝগড়া-বিবাদ করা নিষেধ।
ষ গায়ে বা কাপড়ে লেগে থাকা উকুন সরানোও নিষেধ।
ষ টিড্ডি মারাও নাজায়েজ।
গ্রন্থনা : ড. মুফতী মুহাম্মদ গোলাম রববানী




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]