ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ ৮ শ্রাবণ ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯

লালমনিরহাটের তিস্তা তীরবর্তী নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত
২০টি গ্রামের সাড়ে ৬হাজার পরিবার পানিবন্দী
বাঁধ উপচে বন্যার পানি লোকালয়ে,১৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্টান প্লাবিত
লালমনিরহাট প্রতিনিধি
প্রকাশ: শুক্রবার, ১২ জুলাই, ২০১৯, ৫:৩০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

২০টি গ্রামের সাড়ে ৬হাজার পরিবার পানিবন্দী

২০টি গ্রামের সাড়ে ৬হাজার পরিবার পানিবন্দী

অব্যাহত ভারীবর্ষন ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদী তীরবর্তী নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

ব্যারেজ পয়েন্টে  শুক্রবার দুপুর তিনটায় তিস্তা নদীর পানি বিপদ সীমার ২০ সে;মি উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে জেলার নদী তীরবর্তী পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম, হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান, গড্ডিমারী, সির্ন্দুণা , আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ও সদরউপজেলার খুনিয়াগাছ ও রাজপুর ইউনিয়নের ২০টি গ্রামের সাড়ে ৬ হাজার পরিবার পানি বন্দী হয়ে পড়েছে।

সকালের দিকে সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের তিস্তা পাঙ্গাটারী কালিরথান বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধের উপর দিয়ে বন্যার পানি লোকালয়ে প্রবেশ করছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে পাঁচ শতাধিক পরিবার। আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের দক্ষিন বালাটারী, বারঘরিয়া ও চন্ডিমারী গ্রামে বন্যার পানি ঢুকে নতুন করে প্লাবিত হয়েছে নিম্নাঞ্চল। জেলার ১৪টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ও ক্লাসে বন্যার পানি ঢুকে পড়ায় শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হওয়ায় আশংকা করছে শিক্ষার্থীরা। ভারত থেকে আসা উজানের পানির চাপে খুলে দেয়া হয়েছে তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি জলকপাট।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]