ই-পেপার  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯

বিশ্বকাপ জিততে চান মরগান
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 44

দীর্ঘ ২৭ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে ইংল্যান্ড। সবশেষ ফাইনাল খেলেছিল ১৯৯২ বিশ্বকাপে। সব মিলিয়ে চারবার। তবে একবারো শিরোপার দেখা পায়নি ক্রিকেটের জনকরা। এবার যখন ফাইনালে ওঠার দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটেছে, তখন দেশের মাটিতে আয়োজিত শেষটাও রাঙাতে মরিয়া ইংলিশরা। বিগত চার বছরের কঠোর পরিশ্রমকে বৃথা যেতে দিতে রাজি নয় স্বাগতিকরা। তাই তো ইংলিশ অধিনায়ক ইউয়ন মরগান স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, বিশ্বকাপ জিততে চান তারা।

‘হট ফেবারিটে’র আসনে থেকেই বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে ইংল্যান্ড। স্বাগতিক এবং খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স সবদিক বিবেচনায় ওই তকমা পায় ইংলিশরা। এ ছাড়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় এই মঞ্চে মরগানরা খেলতে নামেন ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থেকেই। এতে মিশন শুরুর আগেই রেকর্ডে গড়ে ইংল্যান্ড। ৫০ ওভারের এই মেগা আসরে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থেকে প্রথম কোনো আয়োজক দল হিসেবে খেলতে নেমেছেন মরগানরা।
তবে এসব রেকর্ড ছাপিয়ে লন্ডনের লর্ডসে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলে ফাইনাল জিততে চান ইংলিশ অধিনায়ক, ‘এটা প্রত্যেকের জন্য খুবই উত্তেজনাপূর্ণ সময় এবং সবাই এর অন্তর্ভুক্ত। আমি মনে করি, রোববার ফাইনালে খেলা আমাদের জন্য দারুণ একটি সুযোগ। ম্যাচ জিততে আমরা সর্বোচ্চটা দিয়ে লড়ব। রোববার এমন এক দিন, যা পেছনে পড়ে যাওয়ার জন্য নয়। এমন এক দিন যেখান থেকে আরও সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আমরা ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছি। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের জন্য সবকিছু করতে হবে যেন দিনটি উপভোগ করতে পারি।’

২০১৫ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫ রানের হারে গ্রুপপর্ব থেকেই ছিটকে যায় ইংল্যান্ড। এবার ফাইনালে পৌঁছে সেই দিনের কথা মনে করলেন অধিনায়ক মরগান। সেমিফাইনালের ম্যাচে পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘২০১৫ সালের বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ার পর যদি আমাদের ফাইনাল খেলতে বলতেন, তখন সেটা মজা ছাড়া কিছু হতো না। আপনারা দেখছেন গত বিশ্বকাপে আমরা কোথায় ছিলাম আর আজ আমরা কোথায় আছি। আমাদের খেলার ধরন পরিবর্তন করেছি এবং প্রত্যাশার মাত্রা আরও বাড়িয়েছি, যা আমাদের এখানে পৌঁছতে সাহায্য করেছে। নিজেদের খেলার ধরনে অনেক পরিবর্তন করেছি এবং বিশ্বকাপে সেভাবেই ৫০ ওভার খেলতে চেষ্টা করেছি, যেভাবে গত চার বছর ধরে খেলে আসছি।’

সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বেঁধে দেওয়া ২২৩ রানের লক্ষ্যে মাত্র দুই উইকেট হারিয়েই পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। ওপেনার জেসন রয় ৬৫ বলে ৮৫ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। জয় রুট ৪৯ রান এবং মরগান ৪৫ রানের অপরাজিত ইনিংসে সহজেই জয়ী হয়ে ফাইনালে উঠে যায় ইংল্যান্ড। সতীর্থদের প্রশংসায় মরগান বলেন, ‘আমরা একটি গ্রুপ হিসেবেই দিন কে দিন উন্নতি করছি। সবাই মাঠের বাইরে এমনকি রুমের মধ্যেও ব্যাটসম্যানদের আউট করা নিয়ে আলোচনা করে। ব্যাটসম্যানরাও দারুণ ছন্দে রয়েছে। রয়, বেয়ারস্টো, রুটরা দুর্দান্ত ফর্মে আছে। ধারাবাহিক রান পাচ্ছে। দায়িত্ব বলেন বা অধ্যবসায় বলেন, কোনো কিছুর কমতি নেই আমাদের মধ্যে।’




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]