ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯ ৪ কার্তিক ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ২০ অক্টোবর ২০১৯

ঢাবিতে ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’
ময়লা ফেললেন কর্মচারীরা, পরিষ্কার করলেন উপাচার্য
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশ: সোমবার, ৫ আগস্ট, ২০১৯, ৭:৪২ পিএম আপডেট: ০৫.০৮.২০১৯ ১১:৫৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

ময়লা ফেললেন কর্মচারীরা, পরিষ্কার  করলেন উপাচার্য

ময়লা ফেললেন কর্মচারীরা, পরিষ্কার করলেন উপাচার্য

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী, মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি উদ্যাপন উপলক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহকে ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’ হিসেবে পালনের ঘোষনা দেয়া হয়। ঘোষিত এই ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পরিস্কার যায়গায় ময়লা ফেলে ছবি তোলার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো কামাল উদ্দীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল ও প্রক্টর গোলাম রাব্বানীসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তারা ‘ক্লিন ক্যাম্পাস উইক’ উদ্ধোধনের লক্ষে টিএসসি  যায়। অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার পূর্বে  পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা টিসসির আশপাশে ময়লা ফেলে যায়। পরবর্তীতে মিডিয়ার উপস্থিতিতে উপাচার্য এগুলো পরিস্কার করেন।
ময়লা ফেললেন কর্মচারীরা, পরিষ্কার  করলেন উপাচার্য

ময়লা ফেললেন কর্মচারীরা, পরিষ্কার করলেন উপাচার্য


এ বিষয়ে উপস্থিত এক শিক্ষার্থী বলেন, আমরা সকালেও এ জায়গাটি পরিষ্কার থাকতে দেখি। উপাচার্য স্যারের অনুষ্ঠানের আগে দেখি বিভিন্ন, পলিথিন, প্লাস্টিকের চায়ের কাপ, ডাবের খোসাসহ বিভিন্ন জিনিস পরে আছে। এ ময়লাগুলো একটু আগেও পরিচ্ছন্নতা কর্মীর ভ্যানে দেখেছি।

আরেকজন প্রতক্ষ্যদর্শী বলেন, এখানে যে বর্জ্যগুলো পড়ে ছিল তা এখানকার বর্জ্য ছিল না। অন্য কোথাও থেকে এখানে এসব ময়লা ফেলানো হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পরিচ্ছন্নতা কর্মী বলেন, ‘স্যারদের ময়লা তোলার সুবিধার্থে এসব ময়লা এখানে আনা হয়েছে। স্যার চলে গেলে এগুলো আমরাই পরিষ্কার করব।’

ময়লা ফেলানোর বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘আমরা সবাইকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা থাকার জন্য আহবান করব। কেউ যেন ময়লা না ফেলে সে বিষয়ে অনুরোধ করব।’

ময়লাগুলো কেন এখানে ফেলানো হয়েছে তা জানতে চাইলে উপাচার্য তা এড়িয়ে যান।
 
 




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]