ই-পেপার মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ ৫ ভাদ্র ১৪২৬
ই-পেপার মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯

ভিড় নেই বান্দরবানের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে
বান্দরবান প্রতিনিধি
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদকে কেন্দ্র করে প্রতিবছরই দূর-দূরান্ত থেকে সবুজের চাদরে ঢাকা প্রকৃতিকে দেখতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসেন পর্যটকরা পাহাড়ি কন্যা বান্দরবানে। পাহাড়ের ওপর দিয়ে সারি সারি ভেসে বেড়ানো মেঘের দৃশ্য উপভোগ করতে ছুটে আসেন পর্যটকরা। নীলাচলে দাঁড়িয়ে মেঘের স্পর্শ আর শৈলপ্রপাতের মন কাড়ানো ঝর্নার জলধারা যে কারও মনে দাগ কেটে যায়।
ঈদ এলেই মেঘলা, নীলাচল, বনপ্রপাত, স্বর্ণ মন্দির, রাম, পাত, নীলগিরিসহ বিভিন্ন দর্শনীয় পর্যটন কেন্দ্রে হাজারও পর্যটকের ভিড় লেগে থাকে বান্দরবানে। তবে এবারের ঈদে তা সম্পূর্ণ ভিন্ন। প্রতিবছরের তুলনায় এই বছর পর্যটকের সংখ্যা অনেকটা কম। অন্যান্য বছরের এই সময় বান্দরবান শহরের হোটেল-মোটেল এবং পর্যটন স্পটগুলোতে ভিড় লেগে থাকে। ওই সময় এক ধরনের উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করে থাকে এই জেলায়।
হোটেল-মোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমরা আশা করেছিলাম এই ঈদের টানা ৯দিন সরকারি বন্ধ থাকায় এবার পর্যটকরা পাহাড়ি কন্যা বান্দরবানে সমাগম হবে। কিন্তু তা একেবারেই ভিন্ন চিত্র। এতে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা হতাশ। এ ছাড়াও চাঁদের গাড়িচালক মো. বাদশাহ বলেন, গত বছরের ঈদের দ্বিতীয় দিন আগে থেকে পর্যটকের ভিড় ছিল। কিন্তু সে পরিমাণ পর্যটকের দেখা মিলছে না এবার।
নীলাচল পর্যটন কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা ম্যানেজার আদিত বড়ুয়া বলেন, ঈদের প্রথম দিন ও দ্বিতীয় দিন মিলে টিকেট বিক্রি হয়েছে ৬০০-১০০০টি। যা অন্য বছরের তুলনায় একদম কম। বান্দরবানের পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার বলেছেন, পর্যটকদের নিরাপত্তায় সব ব্যবস্থা নেওয়া আছে। পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে সাদা পোশাকধারী পুলিশের সঙ্গে সঙ্গে টুরিস্ট পুলিশও যুক্ত করা হয়েছে।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]