ই-পেপার রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯

দুই তরুনী ধষর্ণের মামলায় ম্যাজিষ্ট্রেটের সাক্ষ্যগ্রহন
আদালত প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭:৫৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 97

দুই তরুনী ধষর্ণের মামলায় ম্যাজিষ্ট্রেটের সাক্ষ্যগ্রহন

দুই তরুনী ধষর্ণের মামলায় ম্যাজিষ্ট্রেটের সাক্ষ্যগ্রহন

রাজধানীর বনানীর রেইনট্রি হোটেলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে করা মামলায় দুই ম্যাজিষ্ট্রেটের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত।

বুধবার এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহনের জন্য দিন ধার্য ছিল। এদিন আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহনকারী সাক্ষী ঢাকার মট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট সত্যব্রত শিকদার ও তৎকালীন ঢাকার মট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট খুরশীদ আলম আদালতে উপস্থিত হয়ে সাক্ষ্য প্রদান করেন। এসময় ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ৭ এর বিচারক মো. খাদেম উল কায়েশ সাক্ষীর জবানবন্দী গ্রহন করেন। সাক্ষীর জবানবন্দি গ্রহন শেষে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা সাক্ষীদেরকে জেরা করেন। জেরা শেষে পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহনের জন্য আগামী ৫ নভেম্বর পরবর্তী সাক্ষীর জন্য দিন নির্ধারণ করেন বিচারক।  এ নিয়ে মামলাটিতে ১৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহন শেষ হয়েছে।

এদিন মামলার শুনানি থাকায় আসামি সাফাত আহমেদ ও নাঈম আশরাফকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। অন্যদিকে সাফাতের বন্ধু সাদমান সাকিফ, দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন জামিনে থেকে আদালতে উপস্থিত হয়ে হাজিরা প্রদান করেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ রাত ৯টা থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত আসামিরা মামলার বাদী এবং তার বান্ধবী ও বন্ধু শাহরিয়ারকে আটকে রাখে। অস্ত্র দেখিয়ে ভয়-ভীতি প্রদর্শন ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। বাদী ও তার বান্ধবীকে জোর করে একটি কক্ষে নিয়ে যায় আসামিরা। বাদীকে সাফাত আহমেদ একাধিকবার ও তার বান্ধবীকে নাঈম আশরাফ একাধিকবার ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় গত ৬ মে সন্ধ্যায় বনানী থানায় ধর্ষণের অভিযোগে পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করা হয়।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]