ই-পেপার সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৮ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মজার ছড়া
প্রকাশ: শনিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

হাসির ঝিলিক
দিপংকর দাশ

ঝাউয়ের বনে জোনাক হাসে
হাসে তারার দল,
আসমানে লাল পরি হাসে
চল্ ওদিকে চল্।

নদীর জলে নৌকা হাসে
হাসে মাছের ঝাঁক,
ফুলবাগানে অলি হাসে
ডালে হাসে কাক।

শরৎ এলে চিলটা হাসে
দেখে সাদা মেঘ,
আকাশ জুড়ে ঘুড়ি হাসে
দুরন্ত তার বেগ।

ঘরের কোণে দোয়েল হাসে
মুখে মধুর শিস,
যাত্রাপালায় লখাই হাসে
সাথে আমায় নিস্।

রঙিন দোলনায় শিশু হাসে
চুপ মেরে দোল খায়,
সকাল বেলা সূর্য হাসে
আঁধার দূরে যায়।



মমতায় মাখা আঁচল
সোমের কৌমুদী

আমার মায়ের মেঠোপথে
রাখাল যায় হেঁটে, কণ্ঠে মধুর গান;
শুনলে জুড়ায় প্রাণ।

আমার মায়ের কোল জুড়ে
সবুজ রাশি রাশি, সোনালি তার ধান;
দেখলে জুড়ায় প্রাণ।
 


আমার মায়ের মুখের বুলি
সুরে ভরা বাঁশি, কাব্য-কথা-গান
শুনলে জুড়ায় প্রাণ।

আমার মায়ের শাড়ির আঁচল
মায়ায় মাখামাখি, জড়ালে দেহখান;
জুড়িয়ে যায় প্রাণ।



ঘাসফড়িং
ইবরাহীম আদহাম

মনের সুখে ডানা মেলে
উড়ছে যে ঘাস ফড়িং
ইচ্ছে হলে একটু দাঁড়ায়
নাচে তিড়িংবিড়িং।

নানা রঙের রঙিন ফড়িং
বসছে উড়ে ঘাসে
তাই না দেখে খুকুমণি
খিলখিলিয়ে হাসে।

ধরতে গেলে পালায় ফড়িং
যায় উড়ে যায় দূরে
খুকুর হাসি শুনে আবার
 আসে উড়ে উড়ে।


বিল্লু সোনা
তনুজা মিহির চক্রবর্তী

গভীর রাতে ছাদে আমি একা দাঁড়িয়ে,
ভাবছি আমার বিল্লু গেল কোথায় হারিয়ে।
‘বিল্লু সোনা’ ডাক দিলে সে, আসতে ছুটে কোলে,
এখন শুধুই স্মৃতি হয়ে ভাসছে চোখের জলে।
মাছের কাঁটা, দুধের ছানা, পেট না যে তার ভরে
আস্ত একটা ইঁদুর ছানা দিতে হবে ধরে ‌।
খাওয়াদাওয়া শেষে বিল্লু মিঁয়াও মিঁয়াও বোলে
বাধ‍্য হয়ে আমার তাকে নিতে হবে কোলে।
হাত বুলিয়ে দিতে হবে, ঘুম পাড়িয়ে দিতে হবে,
নইলে যে সে আড়ি দিয়ে অনেক দূরে রবে
এইতো সেদিন বড় ঘরে, আম্মা-জেঠুর খাটের নিচে,

মায়ের কাছে শুয়ে ছিলি, চোখটা বন্ধ করে।
বাড়ির সবাই ব‍্যস্ত হলো, তাড়িয়ে দেবে তোরে
চুপটি করে নিয়ে এলাম তোকে আমার ঘরে।
যেদিন সবাই জেনে গেল, বসার ঘরে তলব এল,
মারল যে মা সবার সামনে আমাকে আর তোকে।
দুটো বছর কেটে গেল, হঠাৎ করে কোথায় গেলি
বিল্লু সোনা, আয় না ফিরে আয় বুক ভেঙে যায় শোকে
আমি যে তোর ছোট্ট বনু, ভুলে গেলি আমায়।
এ দ‍্যাখ, আমি করছি প্রমিস, বকবো না আর তোমায়
বুনুর কথা মনে রাখিস, বিল্লু সোনা থাকিস যত দূরে
তোর কথা ভেবে ভেবে, মনটা আমার যাচ্ছে পুড়ে।


তালের পিঠা
মাহমুদুল হাসান আরিফ

ভাদ্র এলে কড়া রোদে
পাকে যে গাছের তাল
তালের পিঠা মুখে দিয়ে
খুকু ভরায় যে গাল।

মা-বোনেরা তালের রসে
বানায় মজার পিঠা
তালের রসের পিঠা খেতে
লাগে ভীষণ মিঠা

তালের পিঠার মৃদু ঘ্রাণ যে
ভেসে আসে নাকে
উঠানে বসে আড্ডা জমে
পিঠা খাওয়ার ফাঁকে।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]