ই-পেপার শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৬ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

টেস্টে সাকিবের আগ্রহ কম : পাপন
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যাচ্ছেতাই অবস্থা বাংলাদেশের। ব্যাট-বলের লড়াইয়ে হারই যেন এখন নিয়তি টাইগারদের। বিশ^কাপের পর ব্যর্থ শ্রীলঙ্কা সফরে। এবার দেশের মাটিতে আফগানিস্তানের কাছে টেস্ট হার। এমনাবস্থায় যখন প্রশ্নবিদ্ধ টাইগারদের খেলার মান, তখন অধিনায়কের পদ ছাড়ার ইচ্ছা পোষণ করে নতুন আলোচনার জন্ম দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। কেন সাকিবের এমন ইচ্ছা? এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পেয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তার মতে, মূলত টেস্টের ব্যাপারে সাকিবের আগ্রহ কম।
সম্প্রতি শেষ হওয়া চট্টগ্রাম টেস্ট শুরুর আগেই অধিনায়কের দায়িত্ব পালনে অনীহা প্রকাশ করেন সাকিব। আফগানদের বিপক্ষে ওই ম্যাচে হারের পর সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক এমনটা বললেন আরও একবার, ‘আমি মনে করি, যদি অধিনায়কের পদে না থাকি, তাহলেই এটা আমার জন্য ভালো। নিজের ব্যক্তিগত দিক থেকে বলতে পারি, এটা আমার ক্রিকেটের জন্য ভালো হবে। যদি আমি অধিনায়কত্ব নেই, তবে আমাদের অবশ্যই বেশ কিছু ইস্যু নিয়ে আলোচনা করতে হবে।’
সাকিবের ওমন বক্তব্যের পর দুইয়ে দুইয়ে চার মিলিয়েছেন পাপন। এর আগে গত বছরের জুলাইয়েও বিসিবি সভাপতি একবার বলেছিলেন, টেস্ট ক্রিকেট খেলতে চান না সাকিব। মূলত টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি সাকিবের খুব একটা আগ্রহ নেই। সেই অনাগ্রহ থেকেই জন্ম নেতৃত্বের অনীহাÑ এমনটা বললেন পাপন, ‘আমরা দেখছি টেস্টের ব্যাপারে বেশ কিছুদিন থেকে ওর (সাকিব) আগ্রহ তেমন নেই। বিশেষ করে আপনারা যদি দেখেন, আমাদের দলগুলো যখন বাইরে যাচ্ছিল, তখন টেস্টের সময় সে বিরতি চায়। ন্যাচারালি ওর হয়তো আগ্রহটা কম।’
বিসিবি প্রধান বলেন, ‘তবে অধিনায়কত্ব নিয়ে কখনও শুনিনি। আমরা কখনও শুনিনি যে, অধিনায়কত্ব নিয়ে ওর আগ্রহ কম আছে। এখন বলার কারণ হতে পারে, অধিনায়ক হলে তো টেস্ট খেলতেই হবে। অধিনায়ক না হলে টেস্ট না খেলেও পারা যায়। তাই ন্যাচারালি হয়তো এই কারণে অধিনায়কত্বের কথাটি এসেছে। ও অনেক সার্ভিস দিয়েছে। আমরা মনে করি, সে হলো সেরা অধিনায়ক। আমাদের হাতে যে অপশন আছে, তাদের মধ্যে থেকে সে সেরা। এখন পর্যন্ত সে আমাদের কিছু বলেনি। মিডিয়াতে বলেছে যে যদি থাকি কিংবা বোর্ডের সঙ্গে কথা বলতে হবে- এই ধরনের একটি কথা।’
ভিন্ন কিছুও ভাবছেন পাপন। যা লুকাননি সংবাদকর্র্মীদের কাছে। তিনি জানান, আফগানিস্তানের কাছে হারের কারণে আবেগী হয়েও ওমন কথা বলতে পারেন সাকিব, ‘যখন আমাদের কাছে বলবে, তখন আমরাও ফরমালি বলব। হয় কী... মন টন খারাপ থাকে তো। ও তো আগে কয়টা টেস্টে যায়ও নাই। এসে হঠাৎ করে আফগানিস্তানের সঙ্গে হারল... ইমোশনাল হতে পারে। আমাদের ছেলেরা তো একটু আবেগি। ঠান্ডা মাথায় যখন বলবে, আমরাও যা বলার বলব, যদি সে বলে।’
পাপন বলেন, ‘আমি গতকাল ওর সঙ্গে বসেছিলাম, কিন্তু সেখানে এমন কোনো আলাপ-আলোচনা হয়নি। যেহেতু এখন একটি সিরিজ চলছে, আমার মনে হয় না এখনই এটি নিয়ে কথা বলা উচিত। ও যদি প্রসঙ্গ ওঠাত, তাহলে অবশ্যই আলোচনা করতাম।’





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]