ই-পেপার রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯

ইংল্যান্ডে বেলিসের শেষের শুরু
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 33

ট্রেভর বেলিস আগেই ঘোষণা দিয়েছেন, চলমান অ্যাশেজ শেষেই ইংল্যান্ডের প্রধান কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন তিনি। নিজের সেই সিদ্ধান্তে এখনও অটল তিনি। আর তাতেই ইংলিশদের হয়ে বেলিসের শেষের শুরু আজ। কেননা, লন্ডনের কেনিংটন ওভালে আজ অ্যাশেজের পঞ্চম এবং শেষ টেস্টে চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে ইংলিশরা।
স্বাভাবিকভাবে লন্ডন টেস্ট এখন কেবল নিছক আনুষ্ঠানিকতার। কারণ পাঁচ ম্যাচে অ্যাশেজের চার টেস্টের পর অস্ট্রেলিয়ার এগিয়ে ২-১ ব্যবধানে। অর্থাৎ লন্ডনে ম্যাচটি অস্ট্রেলিয়া ড্র করলে বা হারলে সমতায় শেষ হবে দুই চিরপ্রতিদ্ব›দ্বীর মর্যাদার লড়াই। আর নিয়মানুযায়ী, আগের অ্যাশেজ অস্ট্রেলিয়া জেতায় এবারও ছাইদানি থাকবে তাদের দখলে। তবে ছাইদানির হিসেব চুকে গেলেও সিরিজের শেষ টেস্ট জয়ে মরিয়া ইংল্যান্ড আর অস্ট্রেলিয়া।
আগেই বলা হয়েছে ইংল্যান্ডে বেলিস অধ্যায়ের শেষের শুরু আজ। যার হাতে ধরে চলতি বছরে প্রথমবারের মতো বিশ^কাপ জয়ের স্বাদ পেয়েছে ক্রিকেটের জনকরা। এমন কোচকে বিদায়ী সংবর্ধনা দিতে জয়ের বিকল্প কিছু ভাবছে না ইংল্যান্ড। যা নিশ্চিত করতে দলে স্বাগতিকরা নামবে জেসন রয়কে ছাড়াই। দল থেকে বাদ পড়েছেন ক্রেইগ ওভারটনও। মূলত পারফর্ম করতে না পারাতেই দলের বাইরে তারা। তাদের জায়গায় এসেছেন অলরাউন্ডার স্যাম কুরান আর ক্রিস ওকস।
বিশ^কাপে দুর্দান্ত পারফর্ম করেই অ্যাশেজ সিরিজে জায়গা করে নেন রয়। কিন্তু টেস্টের কঠিন মঞ্চে নিজেকে একেবারেই প্রমাণ করতে পারেননি। অ্যাশেজে চার টেস্টে তার গড় মাত্র ১৩.৭৫! তার বাদ পড়াটা তাই বড় কোনো চমক নয়। এদিকে ওল্ড ট্রাফোর্ডে খেলতে গিয়ে কাঁধে চোট পেয়েছিলেন ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। এতে টেস্ট থেকে ছিটকে না গেলেও বেলিসের বিদায়ী ম্যাচে বোলিং করতে পারবেন না তিনি, খেলবেন কেবল ব্যাটসম্যান হিসেবে।
ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে জো রুট বলেন, ‘দলে ভারসাম্য আনতে কিছু পরিবর্তন এনেছি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে জেসনের মতো একজন বাদ পড়েছে। জেসন টেস্ট ক্রিকেটে সুযোগ পেয়েছিল কিন্তু সে নিজের মতো খেলতে পারেনি। তবে আমি নিশ্চিত, সে কঠোর পরিশ্রম করে আবারও ফিরবে।’ সব ছাপিয়ে শেষ টেস্টে জয়েই চোখ ইংলিশ দলপতির, ‘আমরা অ্যাশেজ সিরিজ জিতজে পারছি না, এটা বেশ হতাশার। তবে এখন আমাদের হারানোর কিছু নেই। সমতায় সিরিজ শেষ করতে মরিয়া আমরা।’
এদিকে ওভালেও স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে হতাশায় ডুবাতে মরিয়া অজিরা। তাই তো উইনিং টিম কম্বিশন ভেঙেছে সফরকারীরা। অবশ্য একাধিক নয়, দলে মাত্র একটি পরিবর্তনই এনেছে সফরকারীরা। বাদ দেওয়া হয়েছে ট্রাভিস হেডকে। তার পরিবর্তে অস্ট্রেলিয়ার দলে ঠাঁই পেয়েছেন মিচেল মার্শ। এ প্রসঙ্গে অজি অধিনায়ক টিম পেইন বলেন, ‘ট্রাভিস খেলছে না কারণ আমরা মনে করি, লম্বা সিরিজে এ মুহূর্তে আমাদের অতিরিক্ত বোলার প্রয়োজন।’
দীর্ঘ ১৯ বছর পর ইংল্যান্ডের মাটিতে অ্যাশেজ জয় নিশ্চিত হলেও জয়ের ক্ষুধা এখনও কমেনি পেইনের, ‘এটা (অ্যাশেজ) নিয়ে আমরা অনেক বেশি কথা বলি। আমরা এখানে অ্যাশেজ জিততেই এসেছি, ধরে রাখতে নই। গত সপ্তাহের ফলাফল অবিশ^াস্য ছিল। আমরা ভালো খেলেছি। এই টেস্ট আগের ম্যাচের চেয়েও বড়। এটা আমাদের জন্য গ্র্যান্ড ফাইনাল।’





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]