ই-পেপার শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৬ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

এবারের বিপিএল বঙ্গবন্ধুর নামে
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতিবারই বিপিএল শুরুর আগে জটিলতা সৃষ্টি হয় ফ্র্যাঞ্চাইজি আর বিসিবির মাঝে। এবারও এর ব্যতয় ঘটেনি। এরই মাঝে বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ঘোষণা করলেন, এবারের বিপিএলের নাম ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে সামনে রেখেই এমন সিদ্ধান্ত। প্রতিযোগিতায় কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিকে কোনো দল দেওয়া হবে না। আসর চলবে বিসিবির অর্থায়নেই। যা শুরু হবে পূর্ব নির্ধারিত সময় ৬ ডিসেম্বর।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী মার্চে বিশ^ একাদশ ও এশিয়া একাদশের টি-টোয়েন্টি সিরিজের ঘোষণা আগেই দিয়েছিল বিসিবি। জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানকে সম্মান জানাতে এবার বিপিএল উৎসর্গ করা হলো তার নামে। পাপন বলেন, ‘এটির পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ হচ্ছে, আপনারা জানেন আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী। আমরা চাচ্ছি, এবারের বিপিএল আমরা বঙ্গবন্ধুর নামে উৎসর্গ করব। ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ আয়োজন করে এবছর আমরা চালাব।’
বঙ্গবন্ধুর প্রতি সম্মানকে সবচেয়ে বড় কারণ বলা হলেও নিজেরাই সব দল পরিচালনা করবেÑ এমন অবাক করা সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যায় ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সাংঘর্ষিক দাবির বিষয়টি ফুটে উঠল বিসিবি সভাপতির কণ্ঠে, ‘এবার ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর নতুন চুক্তি হওয়ার কথা। তাদের সঙ্গে আমরা বসেছিলাম। সব কিছু থেকে আমি বলতে পারি, কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজির বেশ কিছু দাবি-দাওয়া আছে। ওই দাবিগুলো বিপিএলের অরিজিনাল মডিউলের সঙ্গে পুরোপুরিই সাংঘর্ষিক। কোনোভাবেই মানিয়ে নিতে পারছি না।’
ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর কোনো দাবিগুলো সাংঘর্ষিক। সে সব নিয়ে বিস্তারিত কিছু বলেননি পাপন। তবে বেশ কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি বিপিএলের রাজস্বের ভাগ দেওয়ার যে দাবি করেছিল, সে প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘রাজস্বের ভাগ দেওয়া সম্ভব নয়। ব্যস, বলে দিলাম। আমাদের ৮০ কোটি টাকা করে দিক, আমরা ৪০ কোটি টাকা দিয়ে দেব। ৮ কোটি টাকা করে নেওয়া হতো ফ্র্যাঞ্চাইজিদের কাছ থেকে (ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি), আমরা ১ কোটি টাকায় নামিয়ে এনেছি। ৭ কোটি তো ছেড়েই দিলাম, আবার কী চায়!’
পাপন স্পষ্ট বার্তা, এবারের বিপিএল বিসিবি চালাবে। কিভাবে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকটি দল যা ছিল, ঠিক থাকবে। শুধু ব্যবস্থাপনায় বিসিবি। ক্রিকেটারদের থাকা-খাওয়া, টাকা-পয়সা, গাড়ি, সব আমরা করব। আমি মনে করি, এত সবাই খুশি হবে। যারা এবার করতে চাচ্ছিলেন না, তারা তো অবশ্যই খুশি হবেন। যারা আর্থিক ক্ষতির কথা বলছেন, তারা তো আরও বেশি খুশি হবেন। তাদের পুরো টাকা বেঁচে যাবে। তো আমরা ঠিক করেছি, আমরাই চালাব।’





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]