ই-পেপার শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৪ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কোচকে ছাড়াই রশিদদের প্রস্তুতি
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশে পা ফেলার পর থেকেই বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছে আফগানিস্তান দল। প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্সের পর চট্টগ্রাম টেস্টে টাইগারদের বিপক্ষে দাপুটে জয় তুলে নিয়েছে তারা। রশিদ খানের নেতৃত্বাধীন দলটির চোখ এবার ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের শিরোপায়। আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে লক্ষ্যপথে পা ফেলবে ‘কাবুলিওয়ালা’রা। কিন্তু ওই লড়াইয়ের প্রস্তুতি আফগানদের নিতে হয়েছে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান কোচ অ্যান্ডি মোলসকে ছাড়াই।
বাংলাদেশের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে আফগানদের দারুণ জয়ের নেপথ্য নায়ক মোলসই। বিগত পাঁচ বছরে আফগানদের পাইপলাইন সমৃদ্ধ করতে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা রেখেছেন তিনি। ইংলিশ কাউন্টির দল ওয়ারউইকশায়ারের সাবেক এ ওপেনার আফগান ক্রিকেটে যখন যে ভ‚মিকা পেয়েছেন, কাজ করেছেন নিরলসভাবে। বর্তমানে তিনি একই সঙ্গে আফগানদের প্রধান কোচ, প্রধান নির্বাচক এবং ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধান। ম্যাচের আগে অনুশীলনে এমন একজনের অনুপস্থিতি রশিদ-আসগরদের কাজটাকে অনেকটাই কঠিন করে তুলেছে।
এমনিতেই শুক্রবার দিনভর থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে, ঠিকঠাক অনুশীলনই করতে পারেনি আফগানরা। তার ওপর অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। হাসপাতালের বেডে শুয়েই হোয়াটসঅ্যাপে নিজের পরিকল্পনা বুঝিয়ে দিয়েছেন মোলস। কিন্তু শুধু পরিকল্পনা করলেই তো হবে না, সেটা বাস্তবায়নের কৌশলটা তো মাঠেই আয়ত্ত করতে হয়। এমতাবস্থায় আফগানরা যেন ঘোর অন্ধকারে! ব্যাটিং কোচ নওরোজ মঙ্গলই এখন মূল ভরসা রশিদদের।
বাংলাদেশে এসে দ্বিতীয়বারের মতো হাসপাতালে মোলস। সফরে আসার আগে আবুধাবিতে সপ্তাহখানেকের একটি কন্ডিশনিং ক্যাম্প করেছিল আফগানিস্তান। দলীয় সূত্রে জানা গেছে সেই ক্যাম্প চলাকালেই মরুর উত্তপ্ত বালুতে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মোলসের পায়ে ক্ষত তৈরি হয়েছে। অর্থাৎ পায়ে সমস্যা নিয়েই বাংলাদেশে এসেছেন মোলস। সমস্যা যে যথেষ্টই বেগতিক, সেটা চট্টগ্রাম টেস্টের আগেই বুঝা গিয়েছিল। ব্যান্ডেজে মোড়ানো পা নিয়ে ক্র্যাচে ভর দিয়ে চলাফেরা করছিলেন। প্রস্তুতি ম্যাচে এমএ আজিজ স্টেডিয়াম এবং টেস্টে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মোলস পা ফেলেছেন ক্র্যাচে ভর দিয়েই।
এরপরও পায়ের সংক্রমণ পুরোপুরি সারেনি। চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় এসে তাকে যেতে হয়েছে হাসপাতালে। যেতে হচ্ছে শল্যবিদের ছুরির নিচেও। বৃহস্পতিবারই রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মোলস। আজ সকালে তার পায়ে অস্ত্রোপচার হওয়ার কথা রয়েছে। অর্থাৎ আজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালে আফগানদের ড্রেসিংরুমে মোলসের না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। এটা যদি রশিদদের দুর্ভাবনার জায়গা হয় তাহলে স্বস্তির জায়গাও আছে। প্রতিপক্ষের নাম যে জিম্বাবুয়ে, টি-টোয়েন্টিতে যে দলটির কাছে কখনই হারেনি তারা।
বাংলাদেশের বিপক্ষে চারটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে তিনটিতে জিতেছে আফগানরা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সাত ম্যাচের প্রতিটিতেই রশিদ-নবীরা মাঠ ছেড়েছেন জয়ের আনন্দ নিয়ে। এমন পারফরম্যান্স বিবেচনায় শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজে আফগানরাই ফেবারিট। দলটিতে ভালো মানের বোলার যেমন আছেন, তেমনি আছেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সঙ্গে মানানসই ব্যাটসম্যান। অধিনায়ক রশিদ তো এই ফরম্যাটের অন্যতম সেরা বোলার। তার সঙ্গে আরেক স্পিনার মুজিব-উর রেহমানও আছেন। চট্টগ্রাম টেস্টের দলে ছিলেন না এই তরুণ, ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজটিতে তাই নিজেকে আরও ভালোভাবে মেলে ধরতে চাইবেন তিনি।
যেকোনো ফরম্যাটে আফগানদের স্পিন আক্রমণ বর্তমান বিশে^র অন্যতম সেরা। অন্যদিকে স্পিনের বিপক্ষে জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতা চিরাচরিত। হ্যামিল্টন মাসাকাদজার দলের সামনে আজও তাই কঠিন চ্যালেঞ্জই অপেক্ষা করছে।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]