ই-পেপার শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৪ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার শুক্রবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ব্যর্থতার বৃত্তেই ওয়ার্নার
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ১৪.০৯.২০১৯ ১২:৫২ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

ব্যর্থতার বৃত্তেই ওয়ার্নার

ব্যর্থতার বৃত্তেই ওয়ার্নার

দীর্ঘ ১৮ বছর অপেক্ষার অবসান ঘটিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। চার টেস্ট শেষে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ইংল্যান্ডের মাটিতে অ্যাশেজ জয় নিশ্চিত করেছে (আগের অ্যাশেজ অস্ট্রেলিয়ার জেতায় চলমান সিরিজ সমতায় শেষ হলেও ছাইদানি থাকবে অস্ট্রেলিয়ার কাছে)। কিন্তু দলের সফল মিশনে ব্যর্থতার বৃত্তেই ডেভিড ওয়ার্নার। লন্ডনের ওভালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মর্যাদার সিরিজের পঞ্চম এবং শেষ টেস্টে দলের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৫ রান করতেই সাজঘরে ফিরেছেন এই অজি ক্রিকেটার।

চলমান অ্যাশেজ দিয়ে স্টিভ স্মিথের মতো ওয়ার্নারও ফিরে পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাদা জার্সি। প্রত্যাবর্তনে সিরিজ রাঙাতে স্মিথ সফল হলেও ব্যর্থতার গন্ডিতে আটকা ওয়ার্নার। অ্যাশেজে এখন পর্যন্ত ৯ বার ব্যাটিংয়ে নামা অজি ওপেনারের সর্বোচ্চ ইনিংস ৬১ রানের। বাকি আটবারই দুই অঙ্কের রান স্পর্শ করতে ব্যর্থ তিনি। এর মধ্যে বিনা রানেই ফিরেছেন তিনবার। চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজটিকে সর্বসাকুল্যে ওয়ার্নারের সংগ্রহ মোটে ৮৪ রান।

ওয়ার্নারের এমন ব্যর্থতার পরও অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার দাপট দেখাচ্ছে স্মিথের ব্যাটে। সাবেক অধিনায়কের ব্যাট দলকে টানছে ওভালেও। টেস্টের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ২৯৪ রানের জবাবে ব্যাটিংয়ে নামা সফরকারীরা দুই ওপেনারকে হারায়। ওয়ার্নারকে শিকার বানানোর কিছু সময় পরই মার্কাস হ্যারিসকে (৩) বেন স্টোকসের ক্যাচ বানান জফরা আর্চার। এতে মাত্র ১৪ রানে দুই ওপেনারকে খুইয়ে বিপাকে পড়ে জাস্টিন ল্যাঙ্গারের দল।

শুরুতেই জোড়া ধাক্কা খাওয়া অস্ট্রেলিয়ার হাল ধরেন স্মিথ আর মার্নাস লাবুশানে। এই যুগলের প্রতিরোধে আর কোনো উইকেটে না হারিয়েই দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন সফরকারীরা শেষ করে ৫৫ রানের সংগ্রহ নিয়ে। দ্বিতীয় সেশনে ফের আর্চারের আঘাত। ভাঙে অজিদের ৫৯ রানের জুটি। ক্যারিবীয় বংশোদ্ভুত এই ইংলিশ পেসারের শিকার লাবুশানে। মাত্র দুই রানের জন্য টেস্ট ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ হাফসেঞ্চুরির দেখা পাওয়া হয়নি এই অজির।

এরপর ম্যাথু ওয়েডকে সঙ্গে নিয়ে দলীয় সংগ্রহ বাড়াতে থাকেন স্মিথ। কিন্তু স্যাম কুরানের আঘাতে বড় হয়নি তাদের জুটি। দলীয় ১১৮ এবং ব্যক্তিগত ১৯ রানে ওয়েড সাজঘরের পথ ধরলে মিচেল মার্শকে সঙ্গে নিয়ে লড়ছেন স্মিথ। রাত সাড়ে আটটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ছিল ৪ উইকেটে ১৩২। স্মিথ ৫২ এবং মার্শ ৪ রানে ব্যাট করছিলেন।

এর আগে দ্বিতীয় দিনের শুরুটা ছিল ইংল্যান্ডের জস বাটলার এবং জ্যাক লিচের ব্যাটে। প্রথম দিন শেষে ইংলিশদের সংগ্রহ ছিল ৮ উইকেটে ২৭১। শুক্রবার শেষ তিন ব্যাটসম্যান দলের খাতায় যোগ করতে পারেন ২৪ রান। আগের দিনে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকা বাটলার দ্বিতীয় দিনে চার রান করতেই বনেন কামিন্সের শিকার। পরে মার্শ লিচকে (২১) বোল্ড করলে ২৯৪ রানেই থামে স্বাগতিকদের প্রথম ইনিংস।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : রফিকুল ইসলাম রতন
আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]