ই-পেপার সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ২৯ আশ্বিন ১৪২৬
ই-পেপার সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯

চোট কাটিয়ে ফেরার লড়াই খালেদের
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ

 
সতীর্থরা যখন জাতীয় ক্রিকেট লিগে খেলার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদকে তখন লড়তে হচ্ছে ফিটনেস ফিরে পেতে। মিরপুরে ফিজিও বায়েজিদুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে পুনর্বাসন কার্যক্রম শুরু করেছেন এই পেসার। পুরোপুরি ফিট হয়ে ডিসেম্বরে হতে যাওয়া বিপিএল দিয়ে মাঠে ফেরার লক্ষ্য তার।
চলতি বছরের মে মাসে হাঁটুর ইনজুরিতে পড়েন খালেদ। চোটগ্রস্ত সেই হাঁটুতে অস্ত্রোপচার হয়েছে জুলাইয়ে, ভারতের মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে। এখন ধীরে ধীরে সেরে উঠছেন তিনি। অস্ত্রোপচারের ধাক্কা সামলে ক্রমশ ফিরে পাচ্ছেন নিজেকে। সামগ্রিক অবস্থা নিয়ে দীর্ঘকায় এই পেসার বললেন, ‘এখন রিহ্যাবে আছি, এর শেষ বলতে কিছু নেই। ভালো হয়ে গেলেও এটা চালিয়ে যেতে হবে। এখন ৭০ ভাগ ঠিক আছি। বায়েজিদ ভাইয়ের অধীনে আছি। উনি যা পরামর্শ দিচ্ছেন তাই করছি।’
পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় কি কি করছেন, তারও বর্ণনা দিলেন ডানহাতি এই পেসার, ‘রিহ্যাবের অংশ হিসেবে স্যান্ড পিটে কাজ করছি, জিম করছি, রানিং, ওয়েট লিফটিং, স্কোয়াট মারছি, লেগ প্রেস এগুলাই করছি।’ খালেদের প্রত্যাশা, নভেম্বরেই বোলিং শুরু করতে পারবেন, ‘নভেম্বরের শেষদিকে আমাকে বোলিংয়ের অনুমতি দিতে পারে। আশা করি এর মধ্যেই রিহ্যাবের প্রাথমকি কার্যক্রম শেষ করতে পারব।’ হাঁটুতে খালেদ চোট পেয়েছিলেন অদ্ভুতভাবে। নিজের মুখেই বললেন বিস্তারিত, ‘রোজার মাসে ক্যাম্প ছিল। সেটা শেষ করে ঈদের আগের দিন ছুটিতে বাড়িতে গিয়েছিলাম। সেখানে টিভি দেখতে বসে পায়ে টান লাগে, তখন পা সোজা করতে গিয়ে জোরেই মেরে বসেছিলাম। তখনই চোটটা পাই।’
একাডেমি মাঠে খালেদের সঙ্গে ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম রাউন্ডে খুলনার হয়ে মাঠে নামতে এদিনই ঢাকা ছেড়েছেন বাঁহাতি পেসার। ফিট থাকলে খালেদও খেলতে যেতেন সিলেটের হয়ে। জাতীয় লিগে ভালো করেই নজর কাড়েন খালেদ। পরে বিসিএলে ভালো করে জায়গা করে নেন জাতীয় দলে। এখন পর্যন্ত দুটি টেস্ট খেলে সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি ২৭ বছর বয়সি এই পেসার। তিন ইনিংসে বোলিং করে পাননি উইকেট।
ভেবেছিলেন জাতীয় লিগে বোলিং নিয়ে কাজ করে ফিরবেন আরও ধারাল হয়ে। চোট তার আশায় জল ঢেলে দিয়েছে। ম্যাচের পর ম্যাচ বাইরে থাকাটা ভীষণ পোড়াচ্ছে তাকে, ‘সেটা তো অবশ্যই হতাশার, অনেক দিন ধরেই মাঠের বাইরে আছি। শুধু এনসিএল না, ‘এ’ দলের খেলা মিস করছি, জাতীয় দল, এসব মিস যাচ্ছে। সমস্যা নেই, যদি ভালো খেলতে পারি তা হলে আবার ফিরতে পারব।’
খালেদ ফেরার মঞ্চ হিসেবে বিপিএলকেই পাখির চোখ করেছেন, ‘নভেম্বরের শেষের দিকে আমাকে ছাড়পত্র দেবে। এরপর বোলিং শুরু করব। বিপিএল দিয়ে ফেরার আশা করছি।’





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]