ই-পেপার  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ১ কার্তিক ১৪২৬
ই-পেপার  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯

সিরিয়ায় তুরস্কের অভিযানে মার্কিন অনুমোদন নেই: পম্পেও
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:২৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

সিরিয়ায় তুরস্কের অভিযানে মার্কিন অনুমোদন নেই: পম্পেও

সিরিয়ায় তুরস্কের অভিযানে মার্কিন অনুমোদন নেই: পম্পেও

সিরিয়ার উত্তর-পূর্ব সীমান্তে কুর্দি গেরিলাদের বিরুদ্ধে তুরস্কের অভিযানে সবুজ সংকেত দেয়নি যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এমন দাবিই করেছেন।

বুধবার সম্প্রচারমাধ্যম পিবিএসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি সিরীয় সীমান্ত নিয়ে আঙ্কারার নিরাপত্তা উদ্বেগকে ন্যায্য আখ্যা দিয়েছেন।

পম্পেও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কুর্দি অধ্যুষিত এলাকার মার্কিন সেনাদের বিপদের বাইরে রাখতেই তাদের সেখান থেকে সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

ওয়াশিংটনের এ সিদ্ধান্তের পর পরই তুরস্ক সিরিয়ার কুর্দিনিয়ন্ত্রিত এলাকায় সর্বাত্মক অভিযান চালানোর ঘোষণা দেয়।

বুধবার বিমান হামলা চালানোর পাশাপাশি তাদের সেনাবাহিনী ও তুর্কি সমর্থিত সিরীয় বিদ্রোহীরা তেল আবায়াদ ও রাস আল-আইনের ৪টি পয়েন্ট দিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে।
‘অপারেশন পিস স্প্রিং’ অভিযানের প্রথম দিনে তুরস্কের বিমান ও কামান কুর্দিদের ১৮১টি স্থাপনায় আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছে আঙ্কারা।

এসব হামলায় অন্তত ৫ বেসামরিকসহ ৮ জন নিহত ও কয়েক ডজন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্স (এসডিএফ)।

মার্কিন সমর্থিত কুর্দিদের সিরিয়ার উত্তর-পূর্ব এলাকা থেকে হটিয়ে দিতে এ অভিযান শুরু করেছে তুর্কি সেনাবাহিনী। বুধবার ভোরের দিকে তুর্কি সেনাবাহিনীর অগ্রবর্তী দলগুলো তাল আবায়াদ ও রাস আল-আইন শহরের দুটি পয়েন্ট দিয়ে সিরিয়ায় ঢোকে বলে তুরস্কের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ।

রোববার এরদোগানের সঙ্গে ফোনালাপে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চল থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক ডজন সৈন্যকে সরিয়ে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

এর পর পরই আঙ্কারা ওই এলাকায় অভিযানের কথা ঘোষণা করে। সীমান্তে একটি ‘নিরাপদ অঞ্চল’ প্রতিষ্ঠা করে ৩৬ লাখ সিরীয় শরণার্থীদের দেশে ফেরার পথ করে দিতে এ অভিযান হবে বলেও জানিয়েছিল তারা।

বুধবার টুইটারে এরদোগান বলেন, সিরিয়ার উত্তরে তুরস্কের সেনাবাহিনী এবং সিরিয়ার সেনাবাহিনীর বিদ্রোহী গোষ্ঠী কুর্দি বাহিনী এবং ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে ‘অপারেশন পিস স্প্রিং’ শুরু করেছে।

আমাদের লক্ষ্য হল- দক্ষিণ সীমান্তজুড়ে সন্ত্রাস করিডর তৈরি প্রতিরোধ করা এবং এই অঞ্চলে শান্তি ফিরিয়ে আনা। আমরা সিরিয়ার আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা করব এবং স্থানীয় জনগোষ্ঠীকে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে মুক্তি দেব।

আঙ্কারা কুর্দি গেরিলাদের তাদের দেশে নিষিদ্ধ বিচ্ছিন্নতাবাদী কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টির (পিকেকে) সহযোগী মনে করে। আইএসবিরোধী লড়াইয়ে ওয়াইপিজি মার্কিন বাহিনীর ঘনিষ্ঠ মিত্র হিসেবে পরিচিত ছিল।

এভাবে সেনা সরিয়ে নিয়ে ট্রাম্প মিত্রদের ‘পেছন থেকে ছুরি মেরেছেন’ বলে অভিযোগ করছেন কুর্দিরা।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]