ই-পেপার রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৭ নভেম্বর ২০১৯

রায়পুরায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীকে স্কুল ড্রেস প্রদান
রায়পুরা (নরসিংদী) প্রতিনিধি
প্রকাশ: রোববার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:২৬ পিএম আপডেট: ২০.১০.২০১৯ ৮:২৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 54

রায়পুরায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীকে স্কুল ড্রেস প্রদান

রায়পুরায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীকে স্কুল ড্রেস প্রদান

নরসিংদীর রায়পুরায় এক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দেড় শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীকে নতুন স্কুল ড্রেস প্রদান করেছে আলহাজ একেএম ফখরুল আলম আরমান নামে এক ব্যবসায়ী। তিনি উপজেলার আদিয়াবাদ গ্রামের কৃতি সন্তান ও মালয়েশিয়া পামওয়েল কাউন্সিল (বাংলাদেশ ও নেপাল) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

প্রধান শিক্ষক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের ১২০নং করিমগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হত-দরিদ্র দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীকে দামী কাপড়ের স্কুল ড্রেস, কেডস জুতা, মোজাসহ যাবতীয় ড্রেস সম্প্রতি শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

প্রধান শিক্ষক কবির উদ্দিন বলেন, কিন্ডার গার্টেন স্কুলগুলোতে সচেতন অভিভাবকেরা নিজের অর্থে স্কুলের পোশাক সন্তান শিক্ষার্থীরা পড়ে স্কুলে যায়। কিন্তু গ্রামের হত-দরিদ্র মানুষের
সন্তানেরা ঠিকমত খেতেই পারে না পোশাক পাবে কোথায়। সরকারি স্কুলের শিশুরা ভালো  পোশাক পরতে পারে না বলেই ব্যক্তি উদ্যোগে তিনি ১ শত ৫০ জন স্কুল শিক্ষার্থীকে জুতা মোজাসহ স্কুলের নির্ধারিত সাদা-কালো সিট রংয়ের পোশাক দেওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন
চেতনায় নতুন আনন্দ যোগ হয়েছে। ফলে আনন্দ বিনোদনের মাধ্যমে নিয়মিত স্কুলে আসবে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সদস্য ও আমিরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ এর প্যানেল চেয়ারম্যান খালেদা পারভীন বলেন, প্রতিটি বিত্তবান মানুষ যদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের
শিক্ষার্থীদের স্থানীয়ভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের সম্পুর্ণ পোশাকের ব্যবস্থা করে তাহলে শিশুরা নিয়মিত স্কুলে যেতে আনন্দ পেতো। এমনকি কিন্ডার গার্টেন স্কুলের সাথে পাল্লা দিয়ে শিশুরা শিক্ষায় আগ্রহী হয়ে উঠতো।

দানবীর ফখরুল আলম আরমান বলেন, সব ছাত্রছাত্রী এক রঙের পোশাক পড়লে যেমন সবাইকে সুন্দর লাগে তেমনি শিক্ষার্থীদের মনেও শিক্ষার আনন্দ জেগে ওঠে। বিশেষ করে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হত-দরিদ্র মানুষের সন্তানেরা পড়ালেখা করে। তারা পোশাক কিনতে পারে না। তাই আমি ব্যক্তিগতভাবেই শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে পোশাক দিয়েছি।

উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান হাজী আঃ মোমেন বলেন, এটি সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। প্রত্যেক মানুষকে এভাবে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া উচিত।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]