ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯ ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯

দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান : বিজেপি নেতা
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: বুধবার, ৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৪:২৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 112

দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান : বিজেপি নেতা

দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান : বিজেপি নেতা

বায়ু দূষণের ভয়বতায় নাকাল হয়ে পড়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লি। প্রচন্ড বায়ু দূষণের কারণে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে  ‍দিল্লি বাসিকে  । প্রত্যেক শীতেই দিল্লীর বায়ুদূষণ তীব্র আকার ধারণ করে। গাড়ি ও কলকারখানা থেকে নির্গত ধোঁয়া এবং আশেপাশের রাজ্যগুলোতে শস্য পোড়ানোর ধোঁয়ার কারণে সাধারণত এ সমস্যা তৈরি হয়। কিন্তু গত তিন বছরের মধ্যে এবারের সংকট তীব্র রূপ নিয়েছে।

দিল্লীর মূখ্যমন্ত্রী এই দূষণকে অসহনীয় বলে বর্ণনা করে দিল্লীকে গ্যাস চেম্বারের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন।

পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে, দিল্লিবাসীর প্রতিটি শ্বাসেই যেন ফুসফুসে প্রবেশ করছে মারণ বাতাস। দূষণের ফলে কম দৃশ্যমানতার কারণে রবিবার দিল্লি বিমানবন্দর থেকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে ৩২টি বিমানের গতিপথ। এমনকি দিল্লি সফরে গিয়ে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল।

গত কয়েকদিনে দিল্লিতে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স কোথাও কোথাও ১৬০০ ছাড়িয়ে যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই অসহ্য দুষণের পেছনে রয়েছে পঞ্জাব-হরিয়ানায় চাষিদের নাড়া পোড়ানোর ধোঁয়া। তবে দূষণের নতুন ব্যাখ্যা দিয়েছেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি-র নেতা বিনীত আগরওয়াল। তার দাবি, পাকিস্তানের কারণেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান : বিজেপি নেতা

দিল্লির দূষণের নেপথ্যে পাকিস্তান : বিজেপি নেতা

উত্তর প্রদেশের এই বিজেপি নেতা বলেন, ‘এই যে বিষাক্ত বাতাস আসছে তা হয়তো প্রতিবেশী দেশ ছেড়ে দিয়েছে। কারণ তারা আমাদের ভয় পায়। আমাদের এখন ভেবে দেখা উচিত পাকিস্তান ওই বিষাক্ত গ্যাস ছেড়েছে কিনা।’

সম্প্রতি এক ভিডিও ভাষণে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী  ‎অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, আমরা দূষণ রোধে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছিলাম। সবাই একত্রিত হয়েছিল এই প্রক্রিয়ায়। তা সত্ত্বেও কেন আমরা এই ঝক্কি নেবো? সবাই সম্মিলিতভাবে বসে আলোচনা করুন। পাঞ্জাব ও হরিয়ানায় ২৭ লাখ কৃষক রয়েছেন। আমরা কিভাবে তাদের সবার কাছে পৌঁছাবো? এই সমস্যার সমাধান করতে আমাদের আরও কত বছর সময় লাগবে? এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা দরকার।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দিল্লিতে সোমবার থেকে শুরু হয়েছে জোড়-বিজোড়-রোড রেশন স্কিম। এটি চলবে আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। এই নিয়ম অনুযায়ী, একদিন পর একদিন দিল্লির রাস্তায় চলবে জোড়-বিজোড় রেজিস্ট্রেশন প্লেটযুক্ত যানবাহনগুলো।
সূত্র: জি নিউজ, এনডিটিভি।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]