ই-পেপার শনিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৯ ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৯

নতুনের চ্যালেঞ্জ নিতে ভারতে মুমিনুলরা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 14

টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষের পথে। রোববার নাগপুরে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের তৃতীয় এবং শেষ ম্যাচটি। এরপরই বাংলাদেশ প্রস্তুত হবে দুই টেস্টের সিরিজে স্বাগতিক ভারতকে মোকাবেলায়। ক্রিকেটের অভিজাত এই সংস্করণে ঘরের মাঠে যারা অপ্রতিরোধ্য। বিরাট কোহলির নেতৃত্বে সবশেষ ১১টি সিরিজেই তুলে নিয়েছে জয়। স্বাভাবিকভাবেই কঠিন এক চ্যালেঞ্জের মুখেই পড়তে হচ্ছে টাইগারদের। চ্যালেঞ্জটা আরও কঠিন হয়ে উঠেছে তারকা ওপেনার তামিম ইকবালের অনুপস্থিতি আর নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের নিষেধাজ্ঞায়। সেরা দুই ক্রিকেটারকে ছাড়াও কঠিন চ্যালেঞ্জটা নিচ্ছেন নতুন অধিনায়ক মুমিনুল হক, টেস্ট দলে থাকা সতীর্থদের নিয়ে শুক্রবার
ছেড়ে গেছেন দেশ।
সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি খেলতে টিম বাংলাদেশ এখন নাগপুরে। শুক্রবার দুপুরে দেশ ছেড়ে যাওয়া মুমিনুলরা সেখানেই দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এরপর তারা যাবেন ইন্দোরে, সেখানেই ১৪ নভেম্বর শুরু হবে সিরিজের প্রথম টেস্টটি। ওই টেস্ট দিয়েই বাংলাদেশের ১১তম টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করবেন মুমিনুল। শুধু তাই নয়, ওই টেস্ট দিয়ে বাংলাদেশও ঢুকে যাবে আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে। সিরিজের দ্বিতীয় এবং শেষ টেস্টটি হবে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে। ২২ নভেম্বর শুরু হতে যাওয়া টেস্টটি হবে দিবা-রাত্রির। এবারই প্রথম গোলাপি বলে কৃত্রিম আলোয় টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ, কোহলির ভারতও প্রথমবার নিতে যাচ্ছে এই নতুনত্বের স্বাদ।
ইতিহাসের সাক্ষী হওয়ার রোমাঞ্চ নিয়েই শুক্রবার ভারতে গেছেন টেস্ট দলে থাকা আট ক্রিকেটারÑ অধিনায়ক মুমিনুল, ইমরুল কায়েস, সাদমান ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, সাইফ হাসান, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী, ইবাদত হোসেন আর নাঈম হাসান। টেস্ট দলে থাকা বাকি আট ক্রিকেটারÑ মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম, আল আমিন হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান আর মোসাদ্দেক হোসেন টি-টোয়েন্টি দলে থাকায় আগেভাগেই পৌঁছান ভারতে। রোববার শেষ টি-টোয়েন্টি শেষে এই ১৬ ক্রিকেটার পাড়ি জমাবেন ইন্দোরে। কেবলই টি-টোয়েন্টি দলে থাকা সাত ক্রিকেটারÑ সৌম্য সরকার, নাঈম শেখ, আফিফ হোসেন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, আরাফাত সানি, শফিউল ইসলাম আর আবু হায়দার রনি ফিরে আসবেন দেশে।
তারা সিরিজ জয়ের আনন্দ নিয়ে ফিরবেন নাকি শুরুতে এগিয়ে গিয়েও সিরিজ হাতছাড়া করার হতাশা নিয়ে, সেটা জানা যাবে রোববার। ওইদন যদি টাইগাররা টি-টোয়েন্টি সিরিজটা জিতে যায় তাহলে আরও বেশি আত্মবিশ^াসী হবে টেস্ট দল। তেমনটা যদি নাও হয়, নিজেদের সামর্থ্যে আস্থা রাখছেন মুমিনুল। তিনি তো বলেই দিয়েছেন, ভারতের বিপক্ষে ড্র নয়, জয়ের জন্যই মাঠে নামবে তার দল। একই সুরে কথা বলেছেন তরুণ অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজও। তবে সিরিজটা যে অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে, সেটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি।
এরপরও বাড়তি কোনো চাপ নিচ্ছেন না তরুণ ওপেনার সাদমান ইসলাম। দেশ ছাড়ার আগে তিনি বলেছেন, ‘ভারত অনেক শক্তিশালী দল। কিন্তু ওরকম বাড়তি কোনো চাপ নিয়ে যাচ্ছি না। ওদের বোলারদের নিয়ে অত চিন্তা নেই। আমরা ভালো ভালো অনেক দলের বিপক্ষেই খেলেছি। আমরা যেমন খেলি তেমন খেলাটাই খেলব।’ সাকিব-তামিমের অনুপস্থিতিকে চাপ মানলেও পারফরম্যান্স দিয়ে সেই চাপ কাটিয়ে ওঠা সম্ভব বলেই মনে করছেন সাদমান, ‘আমরা যদি সর্বোচ্চ ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি তাহলে ইতিবাচক ফল পাওয়া সম্ভব।’
ঘরোয়া ক্রিকেট আর ‘এ’ দলের হয়ে আলো ছড়িয়ে এবারই প্রথম টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন সাইফ হাসান। অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা এই তরুণ বললেন, ‘সুযোগ যদি পাই দেশের হয়ে ভালো কিছু করতে চাই। চেষ্টা করব ফর্মটা টেনে নেওয়ার।’ তবে দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলার জন্য যতটুকু প্রস্তুতি নেওয়া দরকার, তা যে দল নিতে পারেনি সেটাও বলে রাখলেন সাইফ, ‘খেললে ভালো হতো। এখন ওখানে গিয়ে যত দ্রুত সম্ভব মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করতে হবে।’




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]