ই-পেপার সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ই-পেপার সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯

ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোকফেস্ট লোকগানের পর্দা নামল
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 21

লোকগান মনকে আন্দোলিত করে। লোক গানের সুর ছুঁয়ে যায় মনের গভীরে। গত দুই দিন ধরে দেশ-বিদেশের লোকসংগীত শিল্পীরা গান ও সুরের জাদুতে রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে আগত দর্শক-শ্রোতাদের মুগ্ধ করেছে। শনিবার তিনদিনের ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব ২০১৯’-এর পর্দা নামল। এটি ছিল উৎসবের পঞ্চম আসর।
সমাপনী আসরের শুরুতেই কাওয়ালি ও দেহতত্ত্বের গান নিয়ে মঞ্চে আসেন দেশের খ্যাতিমান শিল্পী আব্দুল মালেক কাওয়াল। সুফি ঘরানার গান ‘ইশকে নবী ক্যায়া ভুল গায়ি’ দিয়ে সুরের ঝাঁপি খোলেন এই শিল্পী। এরপর একে এক তিনি পরিবেশন করেন ‘হযরত-এ-ইসমে আযম, ইয়া আলী, নূর-এ-মোহাম্মদ হাবীব আল্লাহ, বাবা মওলানা এই ভুবনে নেই তোমার তুলনা, খাজা পিয়াহে দিল্লিতে হে খাজা পিয়া। এরপর পরিবেশনা নিয়ে মঞ্চে আসেন ২০০৩ সালে যাত্রা শুরু করা রাশিয়ার লোকগানের দল সাত্তুমা। ‘নিওফোক’ টাইপের গান দিয়ে মঞ্চ মাতিয়ে এদেশীয় সংগীতানুরাগীদের বিনোদিত করেন এই দলটি। ম্যান্ডোলিন, বাঁশি, ভায়োলিনের সুর ছড়িয়ে দেন আর্মি স্টেডিয়ামে। এরপর মঞ্চে আসেন বাংলাদেশের চন্দনা মজুমদার। সবশেষে মঞ্চে আসেন এ রাতের প্রধান আকর্ষণ পাকিস্তানের ব্যান্ড ‘জুনুন’। সুফি ও রক ঘরানার ফিউশন ঘটিয়ে সংগীতের এই মিলনমেলায় মুগ্ধতা ছড়িয়ে দেন দুই যুগের বেশি সময় ধরে সংগীতাঙ্গনে দাপুটের সঙ্গে এগিয়ে চলা উন্মাদনা সৃষ্টি করা এই ব্যান্ডটি। এবার সরাসরি দর্শক-শ্রোতারা উপভোগ করেছে তাদের প্রিয় এই ব্যান্ডটির গান। ‘জুনুন’-এর উন্মাদনা ছড়িয়েই শেষ হয় তিন দিনের ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক লোকসংগীত উৎসব ২০-১৯’।
সান ফাউন্ডেশনের আয়োজনে এবারের উৎসবের স্পন্সর মেরিল। এই আসরটি সরাসরি সম্প্রচার করেছে মাছরাঙা টেলিভিশন। এবারের উৎসবে অংশ নিয়েছে ছয় দেশের প্রায় দুই শতাধিক শিল্পী।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]