ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১ পৌষ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

সাক্ষাৎকার :মশিউর রহমান মামুন চেয়ারম্যান, হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ, লালমনিরহাট
স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্ত হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ গড়তে চাই
তন্ময় আহমেদ নয়ন লালমনিরহাট
প্রকাশ: বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ২০.১১.২০১৯ ১২:১৬ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 780

স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্ত হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ গড়তে চাই

স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্ত হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ গড়তে চাই

দৈনিক সময়ের আলোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন বলেছেন, স্বচ্ছ, দুর্নীতিমুক্ত ও জবাবদিহিমূলক হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ গড়ে তুলতে চাই।
উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে সময়ের আলোকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে হাতীবান্ধা উপজেলার উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে তিনি তার পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমি মাত্র ৩০ বছর বয়সে হাতীবান্ধা উপজেলার সাধারণ মানুষের অকুণ্ঠ ভালোবাসা ও সমর্থন পেয়ে নির্বাচনে জয়ী হয়েছি। এ জন্য আমি আমার এ বিজয় তাদের উৎসর্গ করলাম। আমি আমার জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত হাতীবান্ধা উপজেলাবাসীর পাশে থেকে হাতীবান্ধার উন্নয়ন কার্যক্রমে সম্পৃক্ত থাকতে চাই।
তিনি বলেন, আমি হাতীবান্ধা উপজেলাবাসীর পাশে ছিলাম সবসময়। কখনও জনবিচ্ছিন্ন হইনি। মানুষকে সেবা দেওয়ার মানসিকতা নিয়ে আমি নির্বাচনে অংশ নেই। ভোটাররা আমাকে মূল্যায়ন করেছেন। আমি প্রত্যাশিত বিজয় পেয়েছি। উপজেলাবাসী যে আশা-আকাক্সক্ষা নিয়ে আমাকে নির্বাচিত করেছেন, আমি যথাযথ সেবা দিয়ে তাদের প্রকৃত সেবক হিসেবে কাজ করে তার প্রতিদান দিতে চাই।
উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে কি কি উন্নয়নের পরিকল্পনা রয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি করতে আমি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেব। প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমি কাজ করতে চাই। গ্রাম হবে শহরÑ প্রধানমন্ত্রীর এ স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে আমি হাতীবান্ধা উপজেলাকে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্যে আনতে কাজ শুরু করে দিয়েছি। আমাদের লালমনিরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন এই এলাকার মানুষের জন্য অনেক উন্নয়ন কার্যক্রম সম্পন্ন করেছেন। আমি এমপির সহযোগিতায় হাতীবান্ধা উপজেলায় যেসব রাস্তা পাকা হয়নি তা পাকাকরণের ব্যবস্থা করব। আমার হাতীবান্ধা উপজেলায় বন্যা এলেই অধিকাংশ জায়গায় পানিবন্দি হয়ে পড়েন আমার ভোটাররা। তারা যেন বন্যার কবল থেকে রক্ষা পান আমি এ জন্য নদীভাঙন রোধে বাঁধ নির্মাণ করতে চাই।
তরুণ প্রজন্মের জন্য কি কি কাজ করা হবে জানতে চাইলে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, সীমান্তবর্তী জেলা লালমনিরহাট একসময় মাদকের করাল গ্রাসে আবদ্ধ ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণার পর অনেকাংশে মাদক কমে গেছে। জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় অনেকে মাদক ব্যবসা থেকে সরে এসে বিভিন্ন বৈধ ব্যবসায় সম্পৃক্ত হয়েছেন। আমি আমার উপজেলার তরুণ প্রজন্মকে মাদকের করাল গ্রাস থেকে রক্ষা করে তাদের খেলার মাঠে ফিরিয়ে আনতে চাই। মাদকমুক্ত উপজেলা গঠন করতে বিভিন্ন সময়ে মাদকবিরোধী সমাবেশ অব্যাহত রাখার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। হাতীবান্ধায় কোনো শিল্প-কারখানা নেই তাই বেকারত্বের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। আমি বেকারত্ব দূরীকরণের লক্ষ্যে আইটি সেক্টরকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে উপবৃত্তি দেওয়ার কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে চাই। দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। দক্ষ জনশক্তি তৈরি হলে অনেকাংশে বেকারত্ব দূর হবে। তিনি জানান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে কাজ করতে কোনো প্রকার সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন না। সব কাজে উপজেলার ভোটারদের সহযোগিতা পাচ্ছেন বলে জানান।
উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন বলেন, জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোর সঙ্গে পরিকল্পনা ও সমন্বয় করে হাতীবান্ধা উপজেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা, মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ, নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধ এবং তরুণ সমাজকে আরও উদ্যমী করে আত্মকর্মসংস্থানের ওপর গুরুত্ব দিচ্ছি।
উল্লেখ্য, মশিউর রহমান মামুন একটি রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান। তার বাবা মো. আতিয়ার রহমান হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দীর্ঘ ২১ বছর সভাপতি হিসেবে সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বর্তমানে হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। মশিউর রহমান মামুন স্কুলজীবন থেকে ছাত্রলীগ রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। ২০০৪ সালে তিনি এসএসসি পাস করে হাতীবান্ধা আলিমুদ্দিন কলেজে ভর্তি হন। ছিলেন ছাত্রলীগের সক্রিয় সদস্য। তিনি ২০০৬ সালে হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করেন। তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় বিরোধীদলের বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি ২০১৫ সালে ছাত্রলীগ হাতীবান্ধা উপজেলা শাখার সভাপতি নির্বাচিত হন। তিনি রাজনীতির পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি ২০১৭-২০১৯ সাল পর্যন্ত লালমনিরহাট জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ ঢাকা কলেজের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি তিস্তার বাম তীর বাঁধ নির্মাণ আন্দোলন কমিটির যুগ্ম আহŸায়কের দায়িত্ব পালন করেন।
রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে তিনি তার বাবার অনুপ্রেরণায় রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন। বিভিন্ন স্থানীয় সংগঠনে নেতৃত্ব দিয়ে তিনি সাধারণ মানুষের দাবি-দাওয়া তুলে ধরার চেষ্টা করেন। ছোটকাল থেকে মানুষের বিপদে-আপদে পাশে থাকার অভ্যাস উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনের। তিনি ছাত্রলীগের উপজেলা সভাপতি থাকাকালীনই উপজেলার সাধারণ মানুষের কাছে ছুটে যেতেন। ছাত্রনেতা হিসেবে বেশি কিছু করার না থাকলেও মানুষের বিপদে-আপদে ছুটে গেছেন তাদের কাছে। সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশ নেন তিনি। নির্বাচনে বেশ কয়েকজন প্রার্থী ছিলেন। এর মধ্যে মশিউর রহমান মামুন নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]