ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১ পৌষ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ছেলের চাকরি পুনর্বহালের দাবি
আমরণ অনশনে অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধা এখন হাসপাতালে
নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 17

বাংলাদেশ ব্যাংকের রংপুর শাখায় ছেলের চাকরি পুনর্বহালের দাবিতে আমরণ অনশনে থাকা মুক্তিযোদ্ধা রঙ্গলাল মহন্ত গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার জেলা প্রশাসক আসিব আহসানের নির্দেশে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।
২১ নভেম্বর দুপুরে শ^াসকষ্ট বেড়ে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন এই মুক্তিযোদ্ধা। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে অনশন স্থলেই স্যালাইন দেওয়াসহ প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেন চিকিৎসকরা। এদিকে চতুর্থ দিনের মতো রঙ্গলাল মহন্তের পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশ ব্যাংক রংপুর শাখার সম্মুখে আমরণ অনশন অব্যাহত রেখেছে। তবে দিন গড়িয়ে সন্ধ্যার পর খোলা আকাশের নিচে শীত উপেক্ষা করে নিদারুণ কষ্টে রাত কাটাচ্ছে রঙ্গলালের পরিবার। জানা গেছে, গত ১৯ নভেম্বর সকালে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার শৈলমারী গ্রাম থেকে ছেলের চাকরি পুনর্বহালের দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করে মুক্তিযোদ্ধা রঙ্গলাল মহন্তের পরিবার। ওইদিন এই মুক্তিযোদ্ধা ছেলের চাকরি ফেরত না দেওয়া হলে মৃত্যুর পর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনসহ বেঁচে থাকাকালে সব রাষ্ট্রীয় সুযোগ-সুবিধা বর্জনের ঘোষণা দেন।
এ ব্যাপারে রঙ্গলাল মহন্তের ছেলে চাকরিচ্যুত সাধন চন্দ্র মহন্ত জানান, চার দিন হয়ে গেল বাংলাদেশ ব্যাংক রংপুর শাখার কোনো প্রতিনিধি বা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। বাবা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তিনি আরও জানান, ২০১২ সালের ১৫ জানুয়ারি থেকে তিনি সততার সঙ্গে চাকরি করছেন। হঠাৎ ১ হাজার ৫০ টাকার হিসাব গরমিলের অভিযোগ তুলে তাকে ষড়যন্ত্র করে চাকরি থেকে বাধ্যতামূলক অবসর দেওয়া হয়েছে। অথচ একই অভিযোগে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ অন্যজনকে চাকরিতে বহাল রেখেছে। সিসিটিভির ফুটেজ দেখে পুনঃতদন্ত করলে তিনি নির্দোষ প্রমাণিত হবেন।
এদিকে মুক্তিযোদ্ধা রঙ্গলাল মহন্ত বলেন, তার ছেলে মুদ্রা নোট পরীক্ষক সাধন চন্দ্র মহন্তের বিরুদ্ধে হিসাবের গরমিলের মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্ত না করেই সাধনকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়েছে। যে কারণে আমার ছেলেকে চোর সাজানো হয়েছে। সেই একই অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও পুনঃ মুদ্রা নোট পরীক্ষককে লঘু শাস্তি দিয়ে চাকরিতে বহাল রাখা হয়েছে। অথচ সাধন চন্দ্র মহন্তকে ষড়যন্ত্রের বেড়াজালে ফেলে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠিয়ে কৌশলে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। তিনি দ্রুত সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ছেলেকে চাকরিতে বহালের দাবিও জানান। দাবি আদায় না হলে মৃত্যুর আগে এবং পর সব রাষ্ট্রীয় মর্যাদা ও সুযোগ-সুবিধা বর্জনের কথা জানান মুক্তিযোদ্ধা রঙ্গলাল মহন্ত




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]