ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১ পৌষ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

পেঁয়াজের দাম কবে কমবে, বলা মুশকিল: বাণিজ্যমন্ত্রী
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: রোববার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৮:৫৪ পিএম আপডেট: ০১.১২.২০১৯ ৯:০৯ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 227

পেঁয়াজের দাম কবে কমবে, বলা মুশকিল: বাণিজ্যমন্ত্রী

পেঁয়াজের দাম কবে কমবে, বলা মুশকিল: বাণিজ্যমন্ত্রী

‘পেঁয়াজের দাম কমে কমবে, এ বিষয়টি স্পষ্ট করে বলা মুশকিল’ এমন মন্তব্য করেছেন বাণিজমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, ‘একমাত্র কমার পথ নিজস্ব উৎপাদিত পেঁয়াজ বাজারে এলে।’

রোববার জাতীয় সংসদের মিডিয়া সেন্টারে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে এমন মন্তব্য করেন তিনি। তবে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি পেঁয়াজের দাম কিছুটা কমতে পারে বলেও তিনি জানান। এ সময় উপস্থিত স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদও বলেন, ‘ ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে পেঁয়াজের দাম সহনীয় পর্যায়ের আসবে’।

টিপু মুনশি বলেন, ‘আমরা কোনরকম বলতে পারবো না পেঁয়াজের এইটা কবে নাগাদ কমবে। এইটা বলা মুশকিল। একমাত্র কমার পথ নিজস্ব উৎপাদিত পেঁয়াজ বাজারে আসলে। ইতোমধ্যে নিজেদের উৎপাদিত কাঁচা পেঁয়াজটা আসতে শুরু করেছে। তাই ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে আরো কমবে বলে আশা করা যায়।’

আমাদের নিজেদের পেঁয়াজ যদি না থাকে। আমাদের যদি ইমপোর্ট করতে হয়, তাহলে ইমপোর্টের যে প্রাইজ থাকবে সেটার উপর ভিত্তি করেই বাঁজারে দাম পড়বে। আমরা ২৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনে ৪৫ টাকা দরে খাওয়চ্ছি। এয়ারে (উড়োজাহাজে) যত মাল (পেঁয়াজ) আসছে সবগুলো ল্যান্ডিং কস্ট পড়ছে প্রায় ২৫০ টাকা। যেটা ওই ২৫০ টাকা দরে কিনেই কিন্তু ৪৫ টাকা দরে মানুষকে খাওয়াচ্ছি।’
 
তিনি আরো বলেন, এখন সারাদেশে প্রতিদিন ৩০০ টন করে ট্রাকে বিক্রি করা হবে। মিশর ও তুরস্ক থেকে আনা এ পেঁয়াজের দাম পড়বে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। এর বাইরে টেকনাফ থেকে যে মাল আসছে মিয়ানমারে তাদের নিজেদের বাজারে দাম আছে ১৫০ টাকার উপরে।

দেশের বাজারে চাহিদা ও মজুদের হিসাব তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘কমানো যেতে পারে যদি টিসিবির মাধ্যমে বেশি দামে কিনে কম দামে বিক্রি করা যায়। কিন্তু সারাদেশে সমস্ত পেঁয়াজ তো টিসিবির দেওযা সম্ভব না। প্রতিদিন চাহিদা সাড়ে ৬ হাজার টন।’

তোফায়েল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখন থেকে রাষ্ট্রায়াত্ব প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে সব পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

‘বাজারে সিন্ডিকেট বলে কিছু নেই’ দাবি করেন সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা আমাদের বন্ধু মানুষ, তারা সহযোগিতা করছেন। ধরপাকড় করে লাভ নেই।

এর আগে সংসদ ভবনে কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ-এর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি, ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন, মোহাম্মদ হাছান ইমাম খাঁন, সেলিম আলতাফ জর্জ ও সুলতানা নাদিরা এবং মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]