ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১ পৌষ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

দিপু এনে দিলেন প্রথম সোনা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ০৩.১২.২০১৯ ১২:৫৮ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 37

দিপু এনে দিলেন প্রথম সোনা

দিপু এনে দিলেন প্রথম সোনা

নেপালে পর্দা উঠা এসএ গেমসের ত্রয়োদশ আসরে বাংলাদেশের শুরুটা ছিল হতাশার, সোমবার গেমসের দ্বিতীয় দিনে সেই হতাশা কিছুটা হলেও ঢেকে গেছে পদক প্রাপ্তির আনন্দে। গেমসে বাংলাদেশকে প্রথম পদক এনে দেন হোমায়রা আক্তার অন্তরা। কারাতের ব্যক্তিগত ‘কাতা’য় এই তরুণী ব্রোঞ্জ জিতলেও সোনা জয়ের অপেক্ষাটা ছিলই। সেই অপেক্ষা ঘুচিয়েছেন দিপু চাকমা। তায়কোয়ান্দোতে লাল-সবুজের প্রতিনিধি হয়ে প্রথম সোনার পদক জিতেছেন রাঙামাটির এই অ্যাথলেট।
তায়কোয়ান্দোর ২৯ অথবা এর বেশি ওজনের প্রতিযোগীদের ইভেন্ট পুমস। কাঠমান্ডুর সাদদোবাদোর ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সে সোমবার ছেলেদের পুমসেই ৮ দশমিক ২৮ এবং ৭ দশমিক ৯৬ স্কোর গড়ে সেরা হন দিপু। প্রথমবারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিক খ্যাত এসএ গেমসে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করতে নেমেই বাজিমাত করেন তিনি। তার কীর্তিতেই এবার কাঠমান্ডুতে প্রথম বেজেছে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত। তাতে রীতিমতো আবেগাপ্লুত দিপু।
২০০১ সাল থেকে তায়কোয়ান্দোতে খেলছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে চাকরি করা দিপু। নিজের ইভেন্টে দেশে এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় পাঁচটি সোনা আর একটি রুপা জয়ের স্বাদ পেয়েছেন তিনি। ক্যারিয়ারের সেরা সাফল্যটা তিনি পেলেন কাঠমান্ডুতে। স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ¡াসে ভাসছেন দিপু, সেই উচ্ছ¡াস ধরা পড়ল তার কণ্ঠেও, ‘দেশের বাইরে খেলতে এসেছি, দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে এসেছি। দেশকে কিছু দিতে পেরে গর্বিত। এই আনন্দ আমি আসলে এখনও বুঝতে পারছি না। আমার হাত ধরে যদি প্রথম সোনার পদক এসে থাকে, তাহলে এই আনন্দ আসলে ভাষায় প্রকাশ করার মতো না।’
মাসখানেক আগে দক্ষিণ কোরিয়ার মিন হাক সেওকে বাংলাদেশ তায়কোয়ান্দো দলের কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তার অধীনে নিজের পারফরম্যান্সে বেশ উন্নতি ঘটিয়েছেন দিপু। অনুশীলন ভালো হওয়ায় এবারের এসএ গেমসে সোনা জয়ের বিষয়ে বেশ আত্মবিশ^াসী ছিলেন তিনি। এ প্রসঙ্গে দিপু বলেছেন, ‘এর আগে কোনো অফিসিয়াল গেমসে কখনও সোনার পদক পাইনি। অন্যান্য দেশে খেলতে গিয়ে সোনার পদক পেয়েছি। এখানে জিতে অনেক গর্ববোধ করছি। আমি আসলে এখনও ঘোরের মধ্যে আছি। আসলে আমরা গোল্ড মেডেলের লক্ষ্য নিয়ে এখানে এসেছি। প্রস্তুতিও সেরকম ছিল।’
দিপুর সাফল্যে উচ্ছ¡সিত বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা। তার আশা, এবারের গেমসে তায়কোয়ান্দো থেকে আরও পদক পাবে বাংলাদেশ, ‘আমি সবসময় আশাবাদী। মাহমুদুল ইসলাম রানা (সাধারণ সম্পাদক) ফেডারেশনের সঙ্গে ছিল। তার দক্ষতার পরিচয় আপনারা পেয়েছেন। ইনশাল্লাহ তায়কোয়ান্দো থেকে আমাদের আরও পদক থাকবে।’ শাহেদ রেজা এরপর বললেন, ‘আমাদের সোনার পদক জেতা শুরু হলো। আশা করি এটা অব্যাহত থাকবে।’





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]