ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১ পৌষ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

পৃথিবীর গণহত্যার ইতিহাসে প্রথম জিপিএস সার্ভে
শাহনেওয়াজ
প্রকাশ: বুধবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ০৪.১২.২০১৯ ১২:৫৮ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 42

পৃথিবীর গণহত্যার ইতিহাসে প্রথম জিপিএস সার্ভে

পৃথিবীর গণহত্যার ইতিহাসে প্রথম জিপিএস সার্ভে

পৃথিবীর গণহত্যার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো জিপিএস (গ্লোবাল পজিশন সিস্টেম) সার্ভের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে গণহত্যা, নির্যাতন ও বধ্যভূমির ডিজিটাল ম্যাপিং করা হচ্ছে। আর সে লক্ষ্যে গণহত্যা নির্যাতন ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কেন্দ্র স্থাপন বিষয়ে প্রকল্প হাতে নিয়েছে
সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়। এটি বাস্তবায়নের জন্য পদক্ষেপ নিয়েছে ১৯৭১ : গণহত্যা নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘর ট্রাস্ট। সম্প্রতি সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এই প্রকল্পের ওপর মূল্যায়ন করেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
সূত্রটি আরও জানায়, বধ্যভূমির ডিজিটাল ম্যাপিং কাজ ৭টি জেলায় সম্পন্ন হয়েছে। বাকি জেলাগুলোর কাজ চলছে। মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা জানান, বাকি জেলাগুলোর কাজ শেষ হলে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সংগঠিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা রাখবে। তিনি আরও জানান, গণহত্যা বধ্যভ‚মি জরিপের কাজ ৩০টি জেলায় শেষ হয়েছে। প্রকল্পের মেয়াদ বাড়লে বাকি ৩৪টি জেলার কাজ শেষ করা সম্ভব হবে।
এদিকে, যে সব পান্ডুলিপি পাওয়া গেছে এর মধ্যে এখনও ৫০টির প্রকাশনা সম্পন্ন হয়নি। এর পাশাপাশি দক্ষিণ ও উত্তরাঞ্চলে বিস্তৃত কিছু গণকবর ও গণহত্যার স্থানে ফলক লাগানো হয়নি। এই সব স্থানে ফলক লাগানোর ব্যাপারে কাজ চলছে বলে আভাস পাওয়া গেছে। আর এ ফলক লাগানো হলে বিস্মৃতির হাত থেকে রক্ষা পাবে।
জানা গেছে, এই প্রকল্পের মেয়াদ এ মাসেই শেষ হওয়ার কথা থাকলেও, আরও এক বছর বাড়তে পারে। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল পরিকল্পনা কমিশনের কাছে মেয়াদ বাড়ানোর জন্য সুপারিশ করেছে। প্রথমে এই প্রকল্পের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছিল ২১ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। পরে তা বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়ায় ২৩ কোটি ২২ লাখ টাকা।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]