ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ১ পৌষ ১৪২৬
ই-পেপার রোববার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ব্রোঞ্জেই তুষ্ট আল আমিন
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 13

মঞ্চ এসএ গেমসের, তাই অ্যাথলেটদের চোখও স্বর্ণ পদকে। কেউ পাচ্ছে, কেউ পাচ্ছে না; মিলছে রুপা বা ব্রোঞ্জ। এদেরই একজন আল আমিন। পেয়েছেন ব্রোঞ্জ কিন্তু তাতেও হতাশা নেই বাংলাদেশের এই অ্যাথলেটের, তুষ্ট তৃতীয় হয়েই।
নেপালে পর্দা ওঠা এসএ গেমসের ত্রয়োদশ আসরের চতুর্থ দিনে বাংলাদেশকে প্রথম পদক উপহার দিয়েছেন আল আমিন। দশরথ স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম পদক এসেছে অ্যাথলেটিকসে। লং জাম্পে আল আমিন পেয়েছেন ব্রোঞ্জ। তিনি লাফিয়েছেন ৭.৬০ মিটার। আর এই ইভেন্টে সোনা জিতেছেন ভারতের লোকেশ সাথিয়ানা। তিনি লাফিয়েছেন ৭.৮৭ মিটার। রুপাও গেছে ভারতে, পেয়েছেন স্বামীনাথান রব।
তবে তৃতীয় হয়েও আক্ষেপ নেই আল আমিনের। কিন্তু কেন? শোনা গেল সেই পুরনো কথা। বাংলাদেশের অ্যাথলেটরা কখনোই পান না তেমন কোনো সুযোগ-সুবিধা। থাকে না ভালো মানের কোচও। দেশে ক্রীড়াবিদদের অনুশীলন করতে হয় অনেক সীমাবদ্ধতার মধ্যেই। কখনো কখনো তো নিজ উদ্যোগে চালিয়ে যেতে হয় ফিটনেস ধরে রাখার এবং নিজেকে আরও পরিপক্ব করার অনুশীলন। এমন কথাগুলোই অসহায়ের মতো বললেন আল আমিন।
তার ভাষ্য ছিল ঠিক এমন, ‘আমি অল্প সুযোগ-সুবিধার মধ্যেও যে ব্রোঞ্জ জিতেছি এতেই খুশি। আমার চেয়েও অনেক ভালো অ্যাথলেট শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তানের। ওরা বিদেশি কোচের অধীনে অনুশীলন করে। কিন্তু তাদের পেছনে ফেলতে পেরে খুশি। বিদেশে উচ্চতর ট্রেনিং পেলে আশা করি (আগামীতে) এসএ গেমসে সোনা উপহার দিতে পারব।’
আল আমিন প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাখলেন, এখন দেখার আল আমিনদের জন্য উচ্চতর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে কিনা কর্তৃপক্ষ।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]