ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২ জুলাই ২০২০ ১৮ আষাঢ় ১৪২৭
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২ জুলাই ২০২০

দ্রুতই নতুন কোচ পাচ্ছে টাইগ্রেসরা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: রোববার, ৭ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 10

চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে মার্চে। নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মেয়েদের ভরাডুবি হওয়ার পর দলের ভারতীয় কোচ অঞ্জু জৈনর সঙ্গে আর চুক্তির মেয়াদ বাড়ায়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তিনিও আর যোগাযোগ করেননি বিসিবির সঙ্গে। টাইগ্রেসদের সঙ্গে পথচলা শেষ ধরে নিয়েই নতুন গন্তব্যে পা বাড়িয়েছেন অঞ্জু। ভারতের বারদা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনে যোগ দিয়েছেন তিনি।
২০১৮ সালে ইংলিশ কোচ ডেভিড ক্যাপেলের জায়গায় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের দায়িত্ব পেয়েছিলেন অঞ্জু। কিন্তু প্রত্যাশার সামান্যই মেটাতে পেরেছেন তিনি। সে কারণেই তার প্রতি আগ্রহ হারায় বিসিবি। বিশ্বকাপের পর থেকেই চলছে নতুন কোচের সন্ধান। কিন্তু করোনাভাইরাস ভয়াবহ হয়ে ওঠায় বিষয়টা নিয়ে সামনে এগুতে পারেনি দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক নয়। তবে ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলো এরই মধ্যে মাঠে ফেরার তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে। বিসিবি অবশ্য এগুচ্ছে ধীরে চলো নীতিতে। তবে রুমানা-সালমাদের জন্য নতুন কোচ নিয়োগের বিষয়টিতে এখন আর ধীরে চলতে চায় না সংস্থাটি। দ্রæতই টাইগ্রেসদের জন্য কোচ নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির উইমেন্স কমিটির চেয়ারম্যান শফিউল আলম নাদেল।
করোনার কারণে সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ থাকলেও নাদেল জানালেন, দ্রæততম সময়ের মধ্যে নারী দলের কোচ নিয়োগ দেওয়া হবে। তার ভাষায়, ‘অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপের পর থেকেই আমরা মেয়েদের কোচ খুঁজছি। অঞ্জু হয়তো বিষয়টি বুঝতে পেরে নিজেই সরে গেছে। আমাদের জন্য অবশ্য ভালোই হয়েছে। আমরা ইতোমধ্যে কোচ খোঁজা শুরু করেছি। করোনাভাইরাসের কারণেই মূলত বিলম্ব হচ্ছে। আশা করি দ্রæততম সময়ের মধ্যে আমরা কোচ নিয়োগ দিতে পারব। হয়তো এক মাসের মতো লাগতে পারে।’
টাইগ্রেসদের কোচ হওয়ার বিষয়ে স্থানীয় অনেকেরই আগ্রহ আছে। তবে বরাবরের মতো বিসিবির নজরে এবারও বিদেশি কোচ। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি নামও তারা পেয়ে গেছেন। এখন যার সঙ্গে ব্যাটে-বলে মিলে যাবে, তাকেই বেছে নেওয়া হবে। নাদেল বিষয়টা পরিষ্কার করেই জানিয়ে রাখলেন, ‘আমরা চাই আগের মতো বিদেশি কোচই নিয়োগ দিতে। হয়তো সাপোর্ট স্টাফদের মধ্যে স্থানীয় কেউ থাকতে পারে। মেয়েদের কোচ হতে স্থানীয় অনেকেই আগ্রহ প্রকাশ করেছে। দেখা যাক, আমরা কাকে কোচ হিসেবে ‍চ‚ড়ান্ত করি।’







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]