ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ ২০ শ্রাবণ ১৪২৭
ই-পেপার  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০

করোনা সক্রিয় রোগীর তালিকায় এশিয়ায় দ্বিতীয় বাংলাদেশ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম আপডেট: ১৩.০৭.২০২০ ১:৫১ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 25

করোনা সক্রিয় আছে এমন রোগীর সংখ্যার দিক থেকে বাংলাদেশ দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। প্রথম অবস্থানে আছে ভারত, আর তৃতীয় অবস্থানে পাকিস্তান। করোনায় মোট সুস্থ এবং মৃত্যুর সংখ্যা যোগ করে তা মোট শনাক্ত থেকে বাদ দিলে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা পাওয়া যায়। সেই হিসেবে ভারত প্রথম অবস্থানে আছে। এদিকে করোনাভাইরাসে দেশে আরও ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৩৫২ জনে। এই ২ হাজার ৩৫২ জনের মধ্যে ৫০ শতাংশই ঢাকা বিভাগের। এ ছাড়া ২৬ দশমিক ২৮ শতাংশ চট্টগ্রাম বিভাগের, ৫ দশমিক ১৪ শতাংশ রাজশাহী বিভাগের, ৫ দশমিক ১৪ শতাংশ খুলনা বিভাগের, ২ দশমিক ৩৪ শতাংশ ময়মনসিংহ বিভাগের, ৩ দশমিক ১০ শতাংশ রংপুর বিভাগের, ৪ দশমিক ৩৮ শতাংশ সিলেট বিভাগের এবং ৩ দশমিক ৬১ শতাংশ বরিশাল বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।
রোববার আরও ২ হাজার ৬৬৬ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়ায় দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৭৯৫ জন হয়েছে। অন্যদিকে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৫ হাজার ৫৮০ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত ২৪ ঘণ্টায়। তাতে সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল মোট ৯৩ হাজার ৬১৪ জনে।
দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে রোববার নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ৩৬ জন পুরুষ, ১১ জন নারী। তাদের মধ্যে ৪৩ জন হাসপাতালে এবং ৪ জন বাড়িতে মারা গেছেন। তাদের মধ্যে ২৩ জন ঢাকা বিভাগের, ৬ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৪ জন রাজশাহী বিভাগের, ৬ জন খুলনা বিভাগের, ২ জন বরিশাল বিভাগের, ২ জন রংপুর বিভাগের এবং ৪ জন সিলেট বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। এই ৪৭ জনের মধ্যে ২ জনের বয়স ৮০ বছরের বেশি। এ ছাড়া ৬ জনের বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে, ১৪ জনের বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে, ১৫ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ৪ জনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, ৩ জনের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, ২ জনের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে এবং ১ জনের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিল।
তিনি বলেন, এ পর্যন্ত যারা মারা গেছেন, তাদের ৪৩ দশমিক ৬৬ শতাংশের বয়স ৬০ বছরের বেশি। শূন্য দশমিক ৬০ শতাংশের বয়স ১০ বছরের নিচে। এ ছাড়া ২৯ দশমিক ৮০ শতাংশের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ১৪ দশমিক ৫০ শতাংশের বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, ৭ দশমিক ৬ শতাংশের বয়স ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, ৩ দশমিক ২৩ শতাংশের বয়স ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে, ১ দশমিক ১৫ শতাংশের বয়স ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিল।
ডা. নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ৭৭টি ল্যাবে ১১ হাজার ৫৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এই সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে ২ হাজার ২৯৫টি কম। এ পর্যন্ত দেশে ৯ লাখ ৪০ হাজার ৫২৪টি নমুনা পরীক্ষার কথা জানানো হয়।
অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ১১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫০ দশমিক ৯৩ শতাংশ এবং মৃত্যু হার ১ দশমিক ২১ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে আনা হয়েছে ৭৩৭ জন রোগীকে, এখন পর্যন্ত সারা দেশে আইসোলেশনে রয়েছেন ১৭ হাজার ৩১৯ জন।
এম মামুন হোসেন






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]