ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৪ আগস্ট ২০২০ ২০ শ্রাবণ ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ৪ আগস্ট ২০২০

অনলাইনে পশু কেনাবেচায় স্বচ্ছতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন : ওবায়দুল কাদের
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম আপডেট: ১৩.০৭.২০২০ ২:০৮ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 11

অনলাইনে কোরবানির পশু কেনাবেচার ক্ষেত্রে লেনদেনে স্বচ্ছতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি কেউ যেন প্রতারণার শিকার না হয় এর জন্য বিশেষ নজরদারি রাখার পরামর্শ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রোববার  সংসদ
ভবন এলাকায় নিজের সরকারি বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ পরামর্শ দেন তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, আসন্ন ঈদুল আযহায় পশুর হাট বসানো এবং মানুষের ঈদযাত্রা করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মাত্রা উদ্বেগজনক পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারে বলে বিশ্লেষকরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। করোনাভাইরাস বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি কয়েকটি জেলায় পশুর হাট না বসানোর পরামর্শ দিয়েছেন। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে এই পরামর্শ খুবই প্রাগমেটিক এবং বাস্তবায়ন সম্ভব হলে ভালো ফল বয়ে আনবে নিঃসন্দেহ। কিন্তু আমাদের বাস্তবতা ভিন্ন, একদিকে সংক্রমণ রোধ অন্যদিকে জীবনের অনিবার্য প্রয়োজনীয়তা এই দুইয়ের মধ্যে সমন্বয় করে ভারসাম্যপূর্ণ অবস্থান তৈরি করতে হবে। এরই মাঝে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন পশুর হাট সীমিত করার কথা বলেছে। দক্ষিণ সিটি করপোরেশনও আজ বসছে এ বিষয়ে। আমি দেশের প্রতিটি সিটি করপোরেশন এবং স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসহ মাঠ প্রশাসনকে অনুরোধ জানাব, সংক্রমণের বিস্তার ঠেকাতে সীমিত সংখ্যক পশুর হাট অনুমতি দিন।
সড়ক-মহাসড়কের পাশে পশুর হাট না বসানোর নির্দেশনা দিয়ে সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, যত্রতত্র পশুর হাট বসানো যাবে না। সড়ক-মহাসড়ক কিংবা পাশে অনুমতি দেওয়া যাবে না। কেনাবেচায় কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করতে হবে। পশুর হাট সংখ্যায় কমিয়ে আনলে কেনাবেচায় বাড়তি চাপ তৈরি হবে। এই বাড়তি চাপ মোকাবিলায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম হতে পারে বিকল্প। তাই অনলাইনে কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয় জনপ্রিয় করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।
করোনাভাইরাসের দুর্যোগে যারা পরীক্ষাসহ নানা অনিয়ম করেছে তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এ কথা সত্য যে করোনাভাইরাসের পরীক্ষায় সম্প্রতি দুটি প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা মানুষকে বিস্মিত করেছে। মানুষের জীবন-মরণ, মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা কিংবা অসুস্থতা নিয়ে এমন প্রতারণা অত্যন্ত নিন্দনীয় কাজ। দ্রুততার সঙ্গে তদন্তপূর্বক অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনার জন্য আমি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
কাদের বলেন, স্বাস্থ্যখাত এবং অন্যান্য খাতে দুর্নীতি ও অনিয়মকারীদের সাবধান করে দিয়ে বলছি, কেউ ছাড় পাবেন না। দুর্নীতি যেখানেই হবে সেখানেই তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের স্বাধীনতা দুদকের রয়েছে। এমনকি আমার নিজের মন্ত্রণালয়েও যেকোনো দুর্নীতি বা অনিয়মের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণে দুদকের প্রতি কোনো বাধা নেই।
করোনাভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে মানুষ রাস্তায় পড়ে না থাকাতে বিএনপির গাত্রদাহ শুরু হয়েছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব বরাবরের মতো অভিযোগ করছেন, জনগণের জীবন জীবিকার উপর সরকারের নাকি কোনো দায়দায়িত্ব নেই। আমি প্রশ্ন রাখতে চাই, জীবন জীবিকা সচল রাখতে শেখ হাসিনা সরকার যখন নানামুখী সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তখন আপনারা সমালোচনা করেছিলেন কেন? লকডাউনের জন্য চাপ তৈরি করে এখন তিনি জনগণের জীবন জীবিকার কথা বলছেন। বিএনপির সুবিধাবাদী রাজনৈতিক চরিত্র এবং ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ইতোমধ্যে জনগণের কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে। বিএনপি দুর্নীতির লালন, সৃজন, সংক্রমণ ও বিকাশ ছাড়া আর কিছুই করতে পারেনি বলেও দাবি করেছেন ওবায়দুল কাদের।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]