ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭
ই-পেপার শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি
ময়ূর-২ লঞ্চের দুই ইঞ্জিন চালক ও সুকানি গ্রেফতার
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম আপডেট: ১৬.০৭.২০২০ ২:০৯ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 13

ঢাকা সদরঘাটের শ্যামবাজার সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় ময়ূর-২ লঞ্চের দুই ইঞ্জিনচালক ও সুকানিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলেনÑ ইঞ্জিনচালক শিপন হাওলাদার ও শাকিল এবং সুকানি নাসির মৃধা (৪০)। বুধবার পৃথক অভিযানে তাদেরকে গ্রেফতার করে নৌপুলিশ ও র‌্যাব। এ নিয়ে মামলার এজাহারভুক্ত ৫ জনসহ মোট ৬ জনকে গ্রেফতার করল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এখনও এজাহারভুক্ত আসামিদের মধ্যে মাস্টার জাকির ও গ্রিজার হৃদয় পলাতক রয়েছে। তাদেরকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছে তদন্তসংশ্লিষ্টরা। নৌপুলিশের ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) খন্দকার ফরিদুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে পুরান ঢাকার সূত্রাপুর এলাকা থেকে ময়ূর-২ লঞ্চের ইঞ্জিনচালক শিপন হাওলাদার ও শাকিলকে গ্রেফতার করেছে নৌপুলিশের গোয়েন্দা ইউনিট। তারা দুজনই মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। এদিকে বুধবার ভোরে বাগেরহাট জেলার বন্দর এলাকায় অবস্থানরত এমভি রাজিব-২ কার্গো জাহাজ থেকে ময়ূর-২ লঞ্চের সুকানি মো. নাসির মৃধাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৮ এর একটি দল। দুর্ঘটনার সময় লঞ্চটির মাস্টার আবুল বাশার মোল্লার জায়গায় সুকানি নাসির লঞ্চটি চালাচ্ছিলেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।
বরিশাল র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর জাহাঙ্গীর আলম জানান, লঞ্চ দুর্ঘটনার পর তারা এ ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে। পরে নাসির মৃধার অবস্থান জানতে পেরে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। লঞ্চ দুর্ঘটনা মামলার ৬ নম্বর আসামি সুকানি মো. নাসির মৃধা। তাকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
প্রসঙ্গত গত ২৯ জুন মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকার সদরঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে আসা মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটিকে ধাক্কা দিয়ে ডুবিয়ে দেয় ময়ূর-২ লঞ্চ। এ ঘটনায় ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে নৌপুলিশ সদরঘাট থানার উপপরিদর্শক সামশুল আলম বাদী হয়ে ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফকে প্রধান আসামি করে ৭ জনকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ইতোমধ্যেই এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি দুর্ঘটনার জন্য ময়ূর-২ লঞ্চের মাস্টার (চালক) ও সে সময় লঞ্চ চালানোর সঙ্গে যুক্ত অন্যদের প্রধানত দায়ী করেছে।
ময়ূর-২ লঞ্চের দুই চালক রিমান্ডে : বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় করা মামলায় ঘাতক ময়ূর-২ লঞ্চের ইঞ্জিনচালক মো. শিপন হাওলাদার ও মো. শাকিল হাওলাদারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
বুধবার ঢাকার মুখ্য বিচারিক হাকিম (সিজিএম) আদালতে আসামিদের হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নৌ পুলিশের এসআই শহিদুল আলম। এ সময় তিনি মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। অন্যদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ডের আবেদন বাতিলপূর্বক জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে জ্যেষ্ঠ বিচারকি হাকিম ফাইরুজ তাসনীম জামিনের আবেদন নাকচ করে এ আদেশ প্রদান করেন। এর আগে বুধবার সকালে রাজধানীর সূত্রাপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
তা ছাড়া এদিন ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফ সোয়াদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন আদালত। এ সময় সোয়াদের পক্ষে আইনজীবী সুলতান নাসের জামিনের আবেদন শুনানি করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে অতিরিক্ত পিপি আনোয়ারুল কবীর বাবুল জামিনের বিরোধিতা করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে একই বিচারক জামিনের আবেদন নাকচ করেন।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]