ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ ৫ কার্তিক ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০

মধুতে এতো গুণ! ওষুধের চাইতেও বেশি কার্যকর
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২০ আগস্ট, ২০২০, ৬:৫৬ পিএম আপডেট: ২০.০৮.২০২০ ৭:১৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 462

মধুর গুণের কথা কমবেশি সবাই জানি। কিন্তু এটা কি জানি যে, মধু অ্যান্টিবায়োটিক ওষুদের চাইতেও বেশি কার্যকর? হয়তো জানি না। তাহলে আজ এ বিষয়টি জেনে নেওয়া যাক।

সম্প্রতি এক গবেষণায় উঠে এসেছে, মধুর কার্যকারিতা প্রসঙ্গ। সর্দি-কাশির চিকিৎসায় প্রচলিত বিভিন্ন ওষুধ এবং অ্যান্টিবায়োটিকের তুলনায় মধু বেশি কার্যকরী বলে গবেষণাটি জানায়। যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা এ গবেষণাটি করেন।

তারা তাদের গবেষণায় বলেন, ‘সর্দি-কাশির জন্য চিকিৎসকরা রোগীদের অ্যান্টিবায়োটিকের বিকল্প হিসেবে মধু খাওয়ার জন্য সুপারিশ করতে পারেন।’ এর কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।

আপার রেসপিরেটরি ট্রাক্ট ইনফেকশন (ইউআরটিআই) নাক, গলা, কন্ঠস্বর এবং শ্বাসনালীকে প্রভাবিত করে থাকে, যা ফুসফুস সংক্রমণের দিকে নিয়ে যেতে পারে। এর লক্ষণের মধ্যে রয়েছে- গলাব্যথা, নাক বন্ধ এবং কাশি।

এদিকে আমাদের দেশেও মধুর ব্যবহার হয়ে আসছে দীর্ঘদিন। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধদের  কাশি, গলাব্যথা এবং সাধারণ সর্দির ঘরোয়া চিকিৎসা হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে মধু ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে প্রাপ্তবয়স্কের ক্ষেত্রে মধুর কার্যকারিতা প্রমাণের গবেষণাগুলো পদ্ধতিগতভাবে পর্যালোচনা হয়নি। এ বিষয়টি সমাধানের জন্য অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীরা গবেষণাগুলোর তথ্য পর্যালোচনা করেছেন। এজন্য ১৪টি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছে, যেখানে বিভিন্ন বয়সের মোট ১,৭৬১ জন অংশগ্রহণকারী ছিল। এই গবেষণাগুলোর ডেটা বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, সর্দি-কাশির ঘনত্ব এবং তীব্রতা কমানোর ক্ষেত্রে মধু অনেক বেশি কার্যকর ছিল।

দুটি গবেষণার ফলাফলে দেখা গেছে, মধু খাওয়ার ফলে সর্দি-কাশি থেকে নিরাময় ওষুধের তুলনায় ২ দিন আগে হয়েছে।

বিএমজে এভিডেন্স বেজড মেডিসিন জার্নালে প্রকাশিত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন এই গবেষণায় বলা হয়, আপার রেসপিরেটরি ট্রাক্ট ইনফেকশনে (ইউআরটিআই) প্রায়ই অ্যান্টিবায়োটিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। যেহেতু বেশিরভাগ ইউআরটিআই ভাইরাল, তাই অ্যান্টিবায়োটিক প্রেসক্রিপশন উভয়ই অকার্যকর এবং অনুপযুক্ত।

বিজ্ঞানীদের মতে, আপার রেসপিরেটরি ট্রাক্ট ইনফেকশনের চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিকের বিকল্প হিসেবে মধু প্রেসক্রাইব করা যেতে পারে।

কোথায় পাবেন খাঁটি মধু:
ঢাকা ও ঢাকার বাইরে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে এখন খাঁটি মধু পাওয়া যায়। কেউ কেউ আবার সরাসরি সুন্দরবন থেকেও মধু এনে বিক্রি
করে থাকেন। অনলাইনে মধু বিক্রির বেশ কয়েকটি শপ আছে। সেগুলো থেকে মধু নিতে পারেন।

সরেশ- অনলাইন শপের পুনম ঘোষ জানান, তারা শতভাগ খাঁটি মধু বিক্রি করে থাকেন। কোনো প্রকার ভেজালের সম্ভাবনা তাদের মধুতে নেই। নিজেদের বিশ্বস্ত লোকজনের মাধ্যমে তারা প্রাকৃতিক মধু সংগ্রহ করে সরাসরি গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেন। সরেশ-এর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন- ০১৭২০৪২৬৯৪২ এই নাম্বারে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]