ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৫ আশ্বিন ১৪২৭
ই-পেপার  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর মায়ের ইন্তেকাল
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৭:৩৫ পিএম আপডেট: ১৬.০৯.২০২০ ৭:৫৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 95

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান, এমপির মা শিরিয়া খানম ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাহি রাজিউন)। 

বুধবার বিকেলে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। 

শিরিয়া খানম মৃত্যুকালে ৩ ছেলে এবং ২ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। বুধবার এশার নামাজের পর সাভারের তালবাগ কবরস্থান মাঠে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘আমার মমতাময়ী জননী শিরিয়া খানম আর নেই। বার্ধক্যজনিত কারণে আম্মা কিছুদিন অসুস্থ ছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার যখন আম্মাকে দেখতে যাই, আম্মা তখন পুরোপুরি সুস্থ। চিকিৎসকরা ছাড়পত্র দেয়ায় আজই তার বাসায় ফেরার কথা ছিল। কিন্তু মা আর ফিরলেন না। আমাকে অভিভাবকহীন করে চলে গেলেন চিরতরে। আমার মাথায় আশীর্বাদের ছায়া রেখেই মা শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন।’ তিনি আরও লিখেন, ‘ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়েছিলাম। মা আমাদের মানুষ করেছিলেন। সেই মা চলে যাওয়ায় মাথা থেকে যেন একটা ছায়া সরে গেল। সবাই আম্মার জন্য দোয়া করবেন।’

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এম এনামুল হক, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. রমজানুল হক নিহাদ ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আমিনুল হক নাবিল। সমবেদনা জানিয়েছেন দৈনিক সময়ের আলোর প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ্, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক শাহনেওয়াজ দুলাল।




এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]