ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৫ আশ্বিন ১৪২৭
ই-পেপার  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

শিবপুরে তিন খুন
বাঁচানো গেল না বাড়িওয়ালার মেয়েকেও
শিবপুর (নরসিংদী) প্রতিনিধি
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:৪৩ পিএম আপডেট: ১৬.০৯.২০২০ ১১:০৫ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 13

নরসিংদীর শিবপুরে স্ত্রীসহ বাড়িওয়ালা দম্পত্তিকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আহত বাড়িওয়ালার মেয়ে কুলসুম বেগম (২৩) মারা গেছেন। বুধবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে এ ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হলো।
নিহত কুলসুম বেগমের স্বামী জিয়াউর রহমান তারেক ও শিবপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহতের স্বজনেরা জানান, কুলসুমের চার বছর বয়সের একটি সন্তান রয়েছে। মনোহরদীর বগাদী গ্রামের স্বামীর বাড়ি থেকে কুমরাদী গ্রামে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন কুলসুম। ১৩ সেপ্টেম্বর ভোরে পারিবারিক কলহের জেরে শিবপুর উপজেলার কুমরাদী গ্রামের ভাড়াটিয়া কাঠমিস্ত্রি বাদল মিয়া তার স্ত্রী নাজমা বেগমকে (৪০) কুপিয়ে আহত করে। এ সময় বাদল বাড়ির মালিক তাজুল ইসলাম (৫৫), তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৪৫) ও তাদের মেয়ে কুলসুম এগিয়ে আসলে তাদেরকেও ছুরিকাঘাত করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় নরসিংদীর সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাদলের স্ত্রী নাজমা ও বাড়িওয়ালার স্ত্রী মনোয়ারাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান বাড়ির মালিক তাইজুল ইসলাম। মুমূর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয় কুলসুম বেগমকে। চার দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন কুলসুম।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]