ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ ১৪ কার্তিক ১৪২৭
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০

দুর্নীতি ঢাকতে তড়িঘড়ি তুলে ফেলা হলো রাস্তার কার্পেটিং
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:১৬ পিএম আপডেট: ২৪.০৯.২০২০ ১১:৩৬ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 87

দৈনিক সময়ের আলোতে ‘ঝিনাইদহে নির্মাণের পাঁচ দিনেই উঠে গেল ১৯ কোটি টাকার রাস্তার কার্পেটিং’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পরপরই গোজামিল দিয়ে তৈরি রাস্তার কার্পেটিং সরিয়ে ফেলা হয়েছে। বুধবার ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার শ্রীরামপুর এলাকার সদ্যনির্মিত ওই রাস্তার কার্পেটিং তড়িঘড়ি করে তুলতে ভেকু মেশিন ব্যবহার করে ঠিকাদারের লোকজন।
সময়ের আলোতে সংবাদ প্রকাশের দিন মঙ্গলবারই দুদকের যশোর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। দুদক যশোরের উপপরিচালক নাজমুস সাদাত পরিদর্শন শেষে বলেনÑ দেখে বোঝা যাচ্ছে কাজটি নিম্নমানের হয়েছে। রাস্তার কাজে যারা দুর্নীতি করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ^াস দেন তিনি। স্থানীয়রা জানায়, বুধবার সকাল থেকে সড়কের প্রায় এক কিলোমিটার অংশের রাস্তার কার্পেটিং ভেকু মেশিন দিয়ে উঠিয়ে ফেলা হয়েছে। দুর্নীতি ঢাকতেই ঠিকাদার তড়িঘড়ি করেই সদ্য দেওয়া পিচের কার্পেটিং তুলে ফেলেছে বলে দাবি তাদের। ভেকু দিয়ে কার্পেটিং উঠানোই প্রমাণ করে কাজে ব্যাপক দুর্নীতি হয়েছে।
যদিও ঠিকাদার মিজানুর রহমান ওরফে মাসুমের দাবি, রাস্তার কাজে কোনো নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার হয়নি। বৃষ্টির কারণে এমনটি হয়েছে। তবে সওজের একটি সূত্র জানায়, মিজানুর রহমান মাসুম যে কাজটিই করেন, তা স্থায়ী হয় না। এর দুই বছর আগে কালীগঞ্জের বেজপাড়া এলাকার ৫ কোটি টাকার রাস্তার কাজ করেন তিনি। তাও এক মাসের মাথায় নষ্ট হয়ে যায়। তা নিয়ে তখন কম হই চই হয়নি। সওজ বিভাগের কর্মকর্তারা ঠিকাদারের এই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত বলে দীর্ঘদিনের অভিযোগ জন মানুষের।
সড়কটির কাজ দেখাশোনার দ্বায়িত্বে থাকা প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন জানান, নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার ও বৃষ্টির কারণে এমনটি হয়েছে। তবে সিডিউল অনুযায়ী কাজ শেষ হওয়ার তিন বছরের মধ্যে কোনো সমস্যা হলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান পুনরায় তা মেরামত করবে বলে চুক্তিতে উল্লেখ আছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]