ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ ৫ কার্তিক ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০

খালেদা জিয়ার বিদেশ যাত্রা নিয়ে ‘গুঞ্জন’
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৫৮ পিএম আপডেট: ০১.১০.২০২০ ১১:৩১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 54

শর্ত শিথিল করে ‘শিগগিরই’ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার অনুমতি পেতে যাচ্ছেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা শিথিলের জন্য তার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদনের প্রস্তুতিও নেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।
সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়িয়ে সরকার খালেদা জিয়ার প্রতি যে হৃদ্যতা দেখিয়েছে তারই ধারাবাহিকতায় বিদেশ যাত্রার অনুমতিও পেতে যাচ্ছেন বলে একাধিক সূত্র সময়ের আলোকে নিশ্চিত করেছে। পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হলে বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। আর আবেদন করলেই খালেদা জিয়া যুক্তরাজ্যের ভিসা পাবেন বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির হাইকমিশনারও।
সবকিছু মিলিয়ে এবার খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য লন্ডন যাওয়ার গুঞ্জন জোরালো হয়েছে।
গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দÐাদেশ শর্তসাপেক্ষে ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে পরবর্তী ৬ মাসের জন্য স্থগিতের অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পর একই দিন খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এর আগে গত ৩ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানোর সুপারিশ করে আইন 
মন্ত্রণালয়। শর্ত হচ্ছে খালেদা জিয়া এ সময়ে বিদেশে যেতে পারবেন না। বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন। এই শর্ত শিথিলের জন্য সরকারের বিভিন্ন মহলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।
এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম সময়ের আলোকে জানান, খালেদা জিয়ার শরীরের যে অবস্থা তার বিদেশে চিকিৎসা নেওয়া একান্ত জরুরি। আমরা বারবারই তাকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার দাবি জানিয়ে আসছি। মুক্তির মেয়াদ বাড়ালেও সরকার এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত দেয়নি। মুক্তির শর্ত শিথিল করা হলে আমরা বিদেশে নেওয়ার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে আবেদন করব।
খালেদা জিয়ার বিদেশ যাত্রার বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সময়ের আলোকে জানান, খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার বিষয়ে আমাদের কাছে তার পরিবার থেকে কোনো আবেদন আসেনি। যদি আসে তা হলে সেটা পরবর্তী সময়ে বিবেচনা করা হবে।
অন্যদিকে খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নেওয়া একান্ত জরুরি জানিয়ে তার আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন সময়ের আলোকে জানান, দলের পক্ষ থেকে আমাদের চেয়ারপারসনকে বিদেশে নিয়ে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার জন্য বারবার বলা হলেও সরকারের কাছ থেকে কোনো ইতিবাচক সাড়া আমরা পাইনি। এখন যেহেতু করোনা মহামারির একটা সময় যাচ্ছে সেহেতু বিশ^বাসী একটা আতঙ্কিত সময় পার করছে। এই অবস্থা কিছুটা শান্ত হলেই আমরা তার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে আবারও আবেদন করব।
এ বিষয়ে গত বুধবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া চিকিৎসাসেবা নেওয়ার জন্য যুক্তরাজ্যের ভিসা চাইলে পাবেন, এক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের কোনো অবজেকশন নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন।
এ সময় তিনি বলেন, তাকে (খালেদা জিয়া) ভিসা দেওয়ার বিষয়টা নির্ভর করে (দ্যাট উইল ডিপেন্ড) তার আবেদনের ওপর। কেননা এর আগেও তিনি যুক্তরাজ্যের ভিসা পেয়েছিলেন। সাধারণত যুক্তরাজ্যের ভিসা পেতে তার ক্ষেত্রে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। যুক্তরাজ্য সফরে তার ক্ষেত্রে কোনো অবজেকশন নেই। এখন এটা নির্ভর করে যে তিনি ভিসার জন্য পুনরায় আবেদন করবেন কিনা। এ ছাড়া তার পরিবারের সদস্যরাও যুক্তরাজ্যে বসবাস করছে।
এর পরপরই মূলত আলোচনায় আসে খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার বিষয়টি।
এ বিষয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম সময়ের আলোকে জানান, আমরা অবশ্যই চাই খালেদা জিয়াকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিয়ে যেতে। তবে তা সম্পূর্ণভাবে সরকারের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। এখনই এ বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারছি না।
দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছরের জন্য দÐিত বিএনপি চেয়ারপারসন। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রæয়ারি থেকে তিনি কারাবন্দি ছিলেন। পরে পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন চিকিৎসা দেওয়া হয়।
করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সরকারের নির্বাহী আদেশে গত ২৫ মার্চ খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়া হয়। যার মেয়াদ শেষ হয় ২৪ সেপ্টেম্বর। তার আগে খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষে মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতেই সরকার তার মুক্তির মেয়াদ ৬ মাস বৃদ্ধি করে। খালেদা জিয়া এখন গুলশানে তার ভাড়া বাসা ফিরোজায় রয়েছেন। এবার বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার জন্য সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করছেন দলটির নেতাকর্মীরা।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]