ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০

মাহমুদউল্লাহর ভাগ্য বটে!
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০, ১১:৩৯ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 23

শ^াসরুদ্ধকর ম্যাচের মধ্য দিয়ে নিশ্চিত হয়েছে প্রেসিডেন্টস কাপের দুই ফাইনালিস্ট। বুধবার লিগপর্বের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল তামিম ইকবাল এবং নাজমুল হোসেন শান্ত একাদশ। তামিমরা জিতলেই ঘরোয়া প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় ঘণ্টা বাজত মাহমুদউল্লাহ একাদশের। এমন ম্যাচে টাইগার ওপেনারের নেতৃত্বাধীন দল পাচ্ছিল জয়ের সুভাসও। কিন্তু তামিম একাদশ তীরে এসে তরী ডোবালে ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টে মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে ফাইনালে শান্তরা, যা ভাগ্য বটে! যেমনটা মানছেন
মাহমুদউল্লাহ নিজেও।
বুধবার বাঁচা-মরার ম্যাচের তামিমদের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৬৪ রান (বৃষ্টি আইনে), যা তাড়ায় দলটি থামে ১৫৬ রানে। তামিমদের এমন হারে সৃষ্টিকর্তার
কৃপা অগ্রাহ্য করতে পারলেন না মাহমুদুল্লাহ একাদশের দলপতি, ‘সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞ যে আমরা ফাইনালে উঠেছি। গতকালকের (বুধবার) ম্যাচটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ভাগ্যবান বলেই আমরা ফাইনাল খেলছি। তো একদিক থেকে ভালো লাগছে কারণ অনেকদিন পরে আমরা একটা টুর্নামেন্ট খেলছি। যেহেতু করোনাকালে ক্রিকেটও বন্ধ ছিল এবং বিসিবির উদ্যোগে আমরা সবাই ভালো একটা টুর্নামেন্ট খেলছি।’
মাহমুদউল্লাহ যোগ করেন, ‘ফাইনাল খেলতে পারছি। তাই সেদিক থেকে আমরা সবাই মুখিয়ে আছি ভালো ফাইনাল যেন খেলতে পারি। যদিও এটা প্রস্তুতিমূলক একটা টুর্নামেন্ট কিন্তু আমার মনে হয় প্রতিটা খেলোয়াড়ই খুব সিরিয়াস। লড়াকু মনোভাব নিয়েই আমরা খেলেছি। সবার ভেতরেই ওই প্রতিযোগিতাটা ছিল যেন আমরা একজন আরেকজনের চেয়ে ভালো পারফর্ম করতে পারি। সেদিক থেকে আমি বলব যে এই টুর্নামেন্টটা আমাদের সব প্লেয়ারদের জন্যই খুব ভালো একটা প্রস্তুতি ছিল।’
বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হলেও ক্রিকেটারদের মাঠে রাখতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) দুটি দুদিনের ম্যাচের পর তিন দল নিয়ে আয়োজন করেছে ওয়ানডে ফরম্যাটের প্রেসিডেন্টস কাপ। রোববারের ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামবে এই ঘরোয়া প্রতিযোগিতার। এখানে যুব বিশ^কাপ জয়ী ক্রিকেটার ছাড়াও বেশ কয়েকজন তরুণ অংশ নিয়েছেন। এই তরুণদের উন্নতির জন্য এটি দারুণ একটি টুর্নামেন্ট বলে জানিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। বেশ কয়েকজনের পারফরম্যান্স নজরও কেড়েছে তার।
তিন দলে ৪৫ জন ক্রিকেটারের মধ্যে বেশ কয়েকজন তরুণ প্রতিভাবান ক্রিকেটার। বিশেষ করে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ^কাপ জয়ী দলের ৮ ক্রিকেটার ছিল। তাদের সঙ্গে আফিফ-মেহেদি-শান্ত-সাইফউদ্দিনের মতো তরুণরাও ছিলেন। এদের অনেকের পারফরম্যান্স নজর কেড়েছে মাহমুদউল্লাহর, ‘আমাদের দলে শেষ ম্যাচে জয় (মাহমুদুল হাসান) খুব ভালো পারফর্ম করেছে। এ ছাড়া অন্যান্য দলে খেলা হৃদয় (তৈৗহিদ হৃদয়) ভালো করেছে, আফিফ দুর্দান্ত খেলেছে। এর বাইরেও অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার সুযোগগুলো কাজে লাগিয়েছে।’
তরুণদের উন্নতিতে বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপকে গুরুত্বপূর্ণ একটি টুর্নামেন্ট হিসেবে দেখছেন মাহমুদউল্লাহ, ‘আমার মনে হয়, এই টুর্নামেন্টটি তাদের উন্নতিতে সহায়ক ভ‚মিকা পালন করবে। শুধু তাদের জন্যই নয়, দীর্ঘ বিরতির পর আমরাও বুঝতে পারছি আমাদের অবস্থা কেমন। যেহেতু আমরা অনেকদিন পর মাঠে ফিরেছি এবং খুব ভালো একটা টুর্নামেন্ট খেলছি।’






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]