ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০

শিরোপা মাহমুদউল্লাহর নাকি শান্তর?
প্রকাশ: রোববার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 24

ষ ক্রীড়া প্রতিবেদক
শিরোপা উন্মোচন অনুষ্ঠানে ছিলেন তিন অধিনায়ক, ১০ অক্টোবরের সেই অনুষ্ঠানে তিনজনই বলেছিলেন শিরোপা জয়ের লক্ষ্যের কথা। লিগপর্ব শেষে তিনজনের একজন তামিম ইকবালের আশা শেষ হয়ে গেছে। তাকে পেছনে ঠেলে দেশের মাটিতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট ফেরানো প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনালে নাম তুলেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আর নাজমুল হোসেন শান্ত। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজকের সেই ফাইনালে শিরোপাটা একান্তই নিজেদের করে নিতে লড়বে তাদের দল। শেষতক সেটা কে পারবেন, মাহমুদউল্লাহ নাকি শান্ত, সেটা সময়ই বলবে।
ফাইনালটা হওয়ার কথা ছিল শুক্রবার। কিন্তু বিরূপ প্রকৃতি বাধা হয়ে দাঁড়ায়। আবহাওয়ার পূর্বাভাস দেখে শিরোপার লড়াই দুদিন পিছিয়ে দেওয়া হয়। সিদ্ধান্তটা যে সঠিক ছিল, কদিনের টানা বৃষ্টিই তা বলছে। বৃষ্টি বাগড়া দিতে পারে আজও। সেক্ষেত্রে সোমবার রিজার্ভ ডেতে গড়াবে ম্যাচ। সূচি অনুযায়ী আজ দুপুর দেড়টায় শুরু হবে খেলা। বিসিবির অফিসিয়াল ইউটিউব এবং ফেসবুক পেজের পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিভিশনও (বিটিভি) সরাসরি সম্প্রচার করবে ফাইনাল। নিজেদের সর্বোচ্চটা দিয়ে সেই ফাইনালটাকে উপভোগ্য করে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়ে রেখেছেন দুই অধিনায়ক।
তারুণ্যনির্ভর শান্ত একাদশ, তুলনামূলক ভালো পারফরম্যান্স উপহার দিয়ে ফাইনালে নাম তুলেছে দলটি। লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে তাদের কাছে হেরে তামিম একাদশ বিদায় নেওয়ার সুবাদেই শিরোপার লড়াইয়ে স্থান পেয়েছে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। ভাগ্যের জোরে ফাইনালে নাম লিখিয়ে এখন শিরোপায় চোখ রাখছেন দলীয় অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ, ‘সৌভাগ্যবশত আমরা ফাইনাল খেলছি। ভালো লাগছে, কারণ অনেক দিন পরে আমরা একটা টুর্নামেন্ট খেলছি এবং সেটার ফাইনাল খেলতে পারছি। আমরা সবাই মুখিয়ে আছি ফাইনালে যেন ভালো খেলতে পারি।’
মাহমুদউল্লাহর দল ইমরুল-রুবেলের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারে ঠাসা। তবে সেই অভিজ্ঞদের বেশিরভাগই ফাইনালের আগ পর্যন্ত ছিলেন নিষ্প্রভ। মাহমুদউল্লাহ জানিয়েছেন, তারা এখন ফাইনালে নিজেদের মেলে ধরতে মুখিয়ে আছেন। শনিবার মিরপুরে অনুশীলন করেছে দলটির খেলোয়াড়রা। ঘাম ঝরিয়ে লড়াইয়ের জন্য ঝালিয়ে নিয়েছে নিজেদের। মাহমুদউল্লাহ সবার মাঝেই দেখেছেন ভালো করার তাড়না, ‘সবার ভেতরেই ওই প্রতিযোগিতা ছিল, যেন আমরা একজন আরেক জনের থেকে ভালো পারফর্ম করতে পারি, দল হিসেবে ভালো পারফর্ম করতে পারি।’
লিগপর্বে মাহমুদউল্লাহদের দুটো জয় এসেছে তামিম একাদশের বিপক্ষে। অন্যদিকে একবার তামিমদের হারানোর পাশাপাশি দুবারই মাহমুদউল্লাহদের হারিয়েছে শান্ত একাদশ। তিন জয়ে ছয় পয়েন্ট নিয়ে শ্রেয়তর অবস্থানে থেকে ফাইনালে উঠেছে তারা। মাহমুদউল্লাহর বিপক্ষে জয়ের ধারা ফাইনালেও অব্যাহত রাখতে চান শান্ত, উঁচিয়ে ধরতে চান শিরোপা, ‘পুরো টুর্নামেন্টটাই অনেক উপভোগ করেছি, ভালো লেগেছে। সবচেয়ে বড় দিক ছিল, অনেক দিন পর আমরা মাঠে এরকম একটা টুর্নামেন্ট খেলতে পারলাম। সবাই একত্রিত হয়ে মাঠে খেলাটা অনেক বড় ব্যাপার ছিল আমাদের জন্য। অনেক পজিটিভ দিকই ছিল।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘খুব ভালো লাগছে এরকম একটা টুর্নামেন্টে ফাইনাল খেলতে পেরে। আমরা সবাই অনেক উপভোগ করেছি এই টুর্নামেন্ট। আশা করছি ফাইনালেও ভালো কিছু হবে।’
মাহমুদউল্লাহর দল যেমন অভিজ্ঞদের নিয়ে গড়া, শান্তর দলে তেমনি তরুণদের ছড়াছড়ি। তবে অভিজ্ঞতা নিয়ে দলটিতে আছেন মুশফিকুর রহিম। ফাইনালের আগ পর্যন্ত ব্যাট হাতে আসরের সেরা পারফরমার তিনিই। এক সেঞ্চুরি আর দুই হাফসেঞ্চুরিতে ২০৭ রান করেছেন, নিজেকে রেখেছেন তালিকার শীর্ষে। তবে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে কঠিন একটা ক্যাচ নিতে গিয়ে কাঁধে চোট পেয়েছিলেন এই কিপার-ব্যাটসম্যান। তাকে ঘিরে জেগেছিল শঙ্কা। তবে মুশফিক এখন পুরোপুরি ফিট, খেলবেন আজকের ফাইনালে। শান্তর সব থেকে বড় নির্ভরতা মুশফিকই, অন্যদিকে তিনিই মাহমুদউল্লাহর বড় দুশ্চিন্তা।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]