ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০

ইরফানের ৩ দিনের রিমান্ড, মামলার তদন্তে ডিবি পুলিশ
আদালত প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৩৯ পিএম আপডেট: ২৮.১০.২০২০ ১১:৫১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 31

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী জাহিদের বিরুদ্ধে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার রিমান্ড শুনানি শেষে ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান নূর এ আদেশ দেন। অপরদিকে ইরফান ও জাহিদের বিরুদ্ধে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে হত্যাচেষ্টায় ধানমন্ডি থানায় করা মামলার তদন্তভার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মামলাটি হস্তান্তরের তথ্য নিশ্চিত করেন ধানমন্ডি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আশফাক রাজীব হাসান।
জানা যায়, হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম ও তার বডিগার্ড জাহিদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দুটি করে মোট চারটি মামলা তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার অস্ত্র আইনে দুটি মামলায় এজাহার আদালতে পৌঁছলে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী তা গ্রহণ করে আগামী ১৭ নভেম্বর তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে ইরফান ও জাহিদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে করা দুটি মামলায় ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশিদের এজাহার গ্রহণ করে আগামী ৩ ডিসেম্বর তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন বলে জানা যায়।
ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্রে জানা যায়, ধানমন্ডি থানায় দায়েরকৃত নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে হত্যাচেষ্টা মামলাটির তদন্তভার ইতোমধ্যে ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে। মামলার নথিপত্র সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর সম্পন্ন হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী কার্যক্রম ডিবি পুলিশ চালাবে। সে ক্ষেত্রে ইরফান ও তার সহযোগী জাহিদকে রিমান্ডের জিজ্ঞাসাবাদও করবে ডিবি পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে আদালতের অনুমতি চাওয়া হবে। আদালতের নির্দেশক্রমে হত্যাচেষ্টার মামলায় ধানমন্ডি থানা পুলিশের হেফাজতে থাকা দুই আসামিকে (ইরফান ও জাহিদ) ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হতে পারে। এর আগে গত বুধবার দুপুরে ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী জাহিদকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধানমন্ডি থানা হেফাজতে নেওয়া হয়।
প্রসঙ্গত, গত রোববার রাতে স্ত্রীকে নিয়ে মোটরসাইকেলে বাসায় ফিরছিলেন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খান। এ সময় ধানমন্ডিতে সংসদ সদস্যের স্টিকারযুক্ত একটি গাড়ি তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। ওই গাড়িতে ছিল হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান এবং তার দেহরক্ষীসহ কয়েকজন। লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ ধাক্কা দেওয়ার প্রতিবাদ জানালে তখন তাকে মারধর করে রক্তাক্ত করে ইরফান ও তার লোকজন। পরে সোমবার (২৬ অক্টোবর) সকালে মারধর ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে ধানমন্ডি থানায় মামলা করেন লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ। এরপর র‌্যাব হাজী সেলিমের বাড়ি ঘেরাও করে অভিযান চালিয়ে ইরফান ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার করে।










সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]