ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০ ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০

ঋণ করেও চলে না সংসার
কামরুল হাসান হবিগঞ্জ
প্রকাশ: শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০, ১০:৪৮ পিএম আপডেট: ২৯.১০.২০২০ ১১:০৮ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 27

করোনাভাইরাসের কারণে ভালো নেই হবিগঞ্জ শায়েস্তাগঞ্জের পত্রিকা বিক্রেতা মো. শাহজাহান মিয়া। দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে এই শহরে পত্রিকা বিক্রি করে আসছেন তিনি। তিনি বলেন, দেশে লকডাউন শুরু হলে আমার পত্রিকা
 
বিক্রিও বন্ধ হয়ে যায়। স্ত্রী, সন্তান মিলে ৫ জনের সংসার। পত্রিকা বিক্রি না হওয়ায় সংসারের খরচ, সন্তানদের লেখাপড়া খরচ জোগান দিতে এনজিও থেকে ২০ হাজার টাকা ঋণ নিতে হয়েছে। কিন্তু সে টাকা শেষ হয়ে গেলেও স্বাভাবিক হয়নি জীবনযাত্রা। শেষমেশ চিন্তা করছেন শেষ সম্বল ৪ শতকের বাড়িটি বিক্রি করে দেবেন। কিন্তু সেখানেও করোনার বাধা। কোনো ক্রেতাই জমি কিনতে আগ্রহী হচ্ছে না। এখন দেশ কিছুটা স্বাভাবিক হলেও পত্রিকা নিয়ে ছোটাছুটি করে আগের মতো বিক্রি হয় না। তাই সংসার চালানো ও ঋণের সাপ্তাহিক কিস্তি পরিশোধ করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন তিনি।
এক হিসাবে দেখা যায়Ñ করোনা পরিস্থিতির আগে দৈনিক ২০০০-২৫০০ টাকার পত্রিকা বিক্রি করে ৫০০-৭০০ টাকা কমিশন পেয়ে সংসারের খরচ জোগান দিতেন। করোনার শুরু থেকে প্রায় দুই মাস বেকার দিন কাটে। সরকার লকডাউন বাতিল ঘোষণার পর থেকে পুনরায় শুরু হয় পত্রিকা বিক্রির কাজ। বর্তমানে দৈনিক ৭০০-৯০০ টাকার পত্রিকা বিক্রি করে আয় হয় ১৭০-১৮০ টাকা। এই সামান্য আয় দিয়ে সংসারের কিছুই হয় না।
দুঃখের সঙ্গে তিনি একটা কথাই বলতে চানÑ করোনার শুরু থেকে সরকারি-বেসরকারিভাবে অনেক ত্রাণ বিতরণ হয়েছে। কিন্তু শাহজাহান মিয়ার কপালে কিছুই জোটেনি। তিনি মনের ক্ষোভে বলেন, বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে সরকারের বরাদ্দকৃত ত্রাণসামগ্রী তারও পাওয়ার কথা ছিল। না পাওয়ায় তিনি আগামী নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন না বলেও জানিয়েছেন।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]