ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০

রাজধানীতে হঠাৎ বৃষ্টি, শীত নামার পূর্বাভাস বলছেন আবহাওয়াবিদরা
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৩৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 46

নভেম্বর শেষের পথে হলেও এখনো রাজধানীবাসী পাচ্ছেন না শীতের আমেজ। আর এই আমেজ যোগাতেই যেনো শুক্রবার ছুটির দিনের আড়মোড়া ভেঙে এক পশলা বৃষ্টি ভিজিয়ে দেয় রাজধানীবাসীকে। তবে এটিকে এক পশলা বৃষ্টি না বলে আবহাওয়াবিদরা বলছেন এই বৃষ্টির মাধ্যমেই নামতে পারে শীত।

জুম্মার নামাজের পরে যখন মানুষজন নিজেদের প্রয়োজনীয় টুকটাক কাজে রাস্তায় নামেন ঠিক তখনি রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় নামে বৃষ্টি। ঝিরঝিরে থেকে মাঝারি আকারের হঠাৎ বৃষ্টিতে অপ্রস্তুত নগরবাসীকে পোহাতে হয় দুর্ভোগ। এই হঠাৎ বৃষ্টিকে শীত বাড়ার সম্ভাবনা বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক ও আবহাওয়াবিদ শামসুদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, এই বৃষ্টির পর শীত বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি দিনে ও রাতের তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে। তিনি জানান, আজ শনিবার ঢাকা ও আশেপাশের এলাকার আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে এবং আকাশ অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে। তবে কি পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে তা রেকর্ড করা হয়নি বলে জানা গেছে। 

হঠাৎ বৃষ্টিতে ভিজে একাকার হয়ে যাওয়া অফিসগামী সংবাদকর্মী সাব্বির আহমেদ বলেন, ৪টার মধ্যে অফিসে পৌঁছাতে হয়। আকাশ পরিস্কার দেখেই সোয়া ৩টার দিকে মহাখালী থেকে রওনা দেই। কিন্তু বাংলামোটর পর্যন্ত পৌঁছাতে পৌঁছাতে বৃষ্টির বেগ বেড়ে গেলে বাধ্য হয়ে ভিজতে হয়। এই অসময়ে তো কেউ ছাতা নিয়ে বের হয় না। তাই হঠাৎ বৃষ্টি কারো কারো জন্য উন্মাদনার হলেও আমাদের মতো কর্মজীবীদের জন্য অস্বস্থির। একই কথা বলেন রাজধানীর মগবাজার মোড়ের সবজি বিক্রেত রফিক। তিনি বলেন, এই হঠাৎ বৃষ্টিতে মেজাজটাই গেছে খারাপ হইয়া। মাত্র মানুষজন নামাজ শেষ কইরা বাজার-সদাই করতে নামছে এর মইধ্যে এই বিষ্টি। কেমনডা লাগে কন। ভ্যান সামলামু না কাস্টমার সামলামু? না নিজেরে?

তবে এরকম ছুটির দিন খুব কমই পেয়েছেন বলে জানান ইস্কাটনের বাসিন্দা এ্যামিলি। তিনি বলেন, লকডাউন সময়ে ঘরে থেকেছি কিন্তু একটা আতংকের মধ্যে দিন পার করতে হয়েছে সব সময়। অফিস-আদালত খোলার পর কাজে বেস্ত হয়ে ভালোই লাগছিলো। সারা সপ্তাহ অপেক্ষা করে থাকি শুক্রবারের ছুটির জন্য। আর এই ছুটির দিনের বিকাল যদি এমন আয়েশি হয় তাহলে তো কথাই নাই।

তবে এই সময়টায় সবচেয়ে বেশি সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহ সময়ের আলোকে বলেন, করোনা ভাইরাস নিয়ে এমনিতে আমরা একটা আতংকের মধ্যে সময় পার করছি। শীতকে এর সংক্রমণ বাড়ার আশংকা তো রয়েছেই। তারওপর এরকম বৃষ্টি হলে বিপদ হতে পারে। তাই সতর্কতা অবলম্বনের বিকল্প নাই।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]