ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০ ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০

দিনাজপুরে নৌ প্রতিমন্ত্রী- করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী সফল
প্রকাশ: রোববার, ২২ নভেম্বর, ২০২০, ১১:৪৩ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 15

ষ নিজস্ব প্রতিবেদক
করোনা মোকাবিলায় আমেরিকা-ইউরোপ যেখানে ব্যর্থ হয়েছে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেখানে সফল হয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ‘ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য গৃহনির্মাণ’ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও সুধী সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন। শনিবার বিকালে দিনাজপুর জেলার বিরলের বেজোড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
নৌ প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমেরিকা যখন ব্যর্থ হয়েছে, তাদের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কীভাবে প্রভাব ফেলেছে আপনারা দেখেছেন। এ ব্যর্থতার কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজয় বরণ করতে হয়েছে। ইউরোপের দেশগুলো ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। সেখানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখনও দেশের করোনা পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণে রেখেছেন। তিনি বলেন, দেশের জনগণ যেন আগেভাগে করোনার ভ্যাকসিন পায় সেজন্য ১ হাজার কোটি টাকা আগাম বরাদ্দ দিয়ে রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জেলা-উপজেলায় করোনার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাংলাদেশ করোনা মোকাবিলায় সফলতার পরিচয় দিয়েছে। প্রতিমন্ত্রী খালিদ বলেন, শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়ার ক্ষেত্রে যখন জার্মানি ও ইতালি ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। তখন বাংলাদেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ১২ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটাই মানবিক বাংলাদেশ। তিনি বলেন, দেশে অন্যদের রাজনীতি যখন ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেÑ শেখ হাসিনার উন্নয়নের রাজনীতি সেখানে সফলতার পরিচয় দিয়েছে। জাতীয় সংসদে বিএনপিদলীয় সংসদ সদস্য যখন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ কোটি জনগণের নেতাÑ তখন আমরা গর্বিত হই। এ সত্য চাপিয়ে রাখা যাবে না। শেখ হাসিনা শুধু বাংলাদেশে নন; আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও এক আলোকিত নাম।
এর আগে দুপুরে বিরল উপজেলা পরিষদ হলরুমে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর আয়োজিত রবি মৌসুমে কৃষি প্রণোদনা ও পুনর্বাসন কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, পঁচাত্তর সালের পর প্রথমবারের মতো ১৯৯৬ সালে বাংলাদেশের কৃষির জন্য ভর্তুকি দিয়েছিল শেখ হাসিনার সরকার। বঙ্গবন্ধুকে পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট হত্যা করার পর জিয়া, এরশাদ এবং খালেদা জিয়া কখনও কৃষকদের জন্য এবং কৃষির জন্য ভর্তুকি দেননি। তারা ভর্তুকি দিয়েছিলেন অন্যখাতে, অস্ত্র কেনা ও সামরিক খাতে ভর্তুকি দিয়েছেন। কিন্তু কৃষকদের জন্য ভর্তুকি দেননি। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, দেশের নব্বইভাগ কৃষক গ্রামে থাকেন, গ্রামে যেতে হবে। কিন্তু তাদের (জিয়া-খালেদা জিয়া) মনোযোগ গ্রামের দিকে ছিল না।
খালিদ মাহমুদ বলেন, শেখ হাসিনার সরকারকে তখন বিশ^ব্যাংক বাধা দিয়েছিল যে এই ভর্তুকি দেওয়া যাবে না, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তখন বলেছিলেন, বিশ^ব্যাংকের কথায় বাংলাদেশ চলবে না। বাংলাদেশের মানুষের জন্য যেটা ভালো হয়, সেভাবেই বাংলাদেশ চলবে। মন্ত্রী বলেন, আমাদের শাসনকাল ’৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত কৃষকদের সার-বীজ-কীটনাশকের জন্য যুদ্ধ করতে হয়নি। কৃষকদের সার-বীজ-কীটনাশকের জন্য কৃষিপণ্য নষ্ট করতে হয়নি।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]